বলিউডের এই সময়কার নন্দিত ও জনপ্রিয় দায়িকাদের কথা এলে অবশ্যই শীর্ষে থাকবেন দিপিকা পাডুকোন। কিন্তু ক্যারিয়ারের শুরুতে অন্যান্য সবার মতো তাকেও পার হতে হয়েছে নানা চড়াই উৎড়াই। সইতে হয়েছে বিব্রতকর কথা, শুনতে হয়েছে অশ্লীল প্রস্তাব। সম্প্রতি এসব নিয়েই মুখ খুলেছেন দিপ্পি।

এক ম্যাগাজিনে দেওয়া সাক্ষাৎকারে দিপিকা জানান, ক্যারিয়ারের শুরুর দিকে মডেলিং থেকে বিটাউনে নায়িকা হিসেবে যাত্রা শুরু করেন তিনি। তখন অনেকের কাছ থেকে নানা ধরনের পরামর্শ পেয়েছিলেন দিপিকা। নাম উল্লেখ না করে তিনি জানান, একজন তাকে পরামর্শ দিয়েছিল আকর্ষণীয় স্তন পেতে অস্ত্রোপচার করার জন্য।

দিপিকা বলেন, ‘আমাকে অনেক কিছু করার জন্য পরামর্শ দেওয়া হয়েছিল ক্যারিয়ারের শুরুর দিকে। আকর্ষণীয় স্তনের জন্য অস্ত্রোপচার করে সৌন্দর্য প্রতিযোগিতায় অংশ নিতে বলা হয়েছিল। তাদের মনে হয়েছিল, একজন বলিউড পরিচালক বা প্রযোজককে প্রভাবিত করার এটাই সঠিক উপায়। কিন্তু আমি সেই মানুষ হতে পারিনি। আমি সবসময় নিজের আত্মবিশ্বাসকে অনুসরণ করে এসেছি।’

নিজের মতো জীবন কাটান বলে অভিনয় ছাড়া অন্য কোনোভাবে নিজেকে প্রমাণ করতে চাননি দিপিকা। নিজের অভিনয় দক্ষতার মাধ্যমে সেই সমালোচকদের ভুল প্রমাণ করেছেন দিপিকা। নায়িকাদের মধ্যে তিনিই এখন বলিউড ইন্ডাস্ট্রির অন্যতম নায়িকা। ভারতের অন্যতম প্রভাবশালী নারীদের তালিকায় প্রথম তিনের মধ্যেই রয়েছে তার নাম ৷

ফারাহ খানের হাত ধরে শাহরুখ খানের বিপরীতে ‘ওম শান্তি ওম’ সিনেমার মাধ্যমে বলিউডে পা রাখেন দিপিকা। একাধিক আলোচিত সিনেমায় অভিনয় করে তাক লাগিয়ে দিয়েছেন অভিনেত্রী। তার অভিনীত সর্বশেষ সিনেমা ‘পদ্মাবত’-এর জন্য তার পারিশ্রমিক ছিল ১২ কোটি রুপি।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here