আর্জেন্টিনার কোচ হোর্হে সাম্পাওলির দল পরিচালন, খেলোয়াড় নির্বাচন ও প্রশিক্ষণ পদ্ধতি নিয়ে কম সমালোচনা হয়নি। এরইমধ্যেই ব্যর্থতার ষোলকলা পূর্ণ করে গতকাল বিশ্বকাপের দ্বিতীয় ম্যাচ থেকেই বাদ পড়েছে আর্জেন্টিনা। ফলে দলের ব্যর্থতা এবং অসন্তোষের মধ্যেই খবর রটেছিল বিশ্বকাপের পরই চাকরি হারাবেন সাম্পাওলি।

কিন্তু শনিবার দলের ব্যর্থতার দায় স্বীকার করলেও এখনই কোচের দায়িত্ব ছাড়তে রাজি নন বলে সাফ জানিয়ে দিয়েছেন সাম্পাওলি। তার মতে হতাশা থেকে আবেগের বশে নেওয়া কোন সিদ্ধান্তের ফল ভাল হতে পারে না।

ফ্রান্সের বিপক্ষে ম্যাচ শেষে সংবাদ মাধ্যমে সাম্পাওলি বলেন, ‘বিশ্বকাপ থেকে ছিটকে যাওয়াটা খুবই হতাশার। কারণ খেলোয়াড়রা চেষ্টার কমতি রাখেনি। তবে হতাশা থেকে আমি পদত্যাগ করার মতো কোন সিদ্ধান্ত নিচ্ছি না।’

এ সময় ম্যাচের আগে নিজেদের পরিকল্পনার ব্যাপারেও কথা বলেন আর্জেন্টিনার কোচ। তিনি জানান মাঠের বাইরে যতো পরিকল্পনাই হোক, মাঠের খেলায় সেসবের ছাপ রাখা যায়নি বলেই হতাশাই সঙ্গী হয়েছে আর্জেন্টিনার।

সাম্পাওলি বলেন, ‘আর্জেন্টিনাকে জেতানোর জন্য দুর্দান্ত একটি পরিকল্পনা সাজিয়েছিলাম আমি। এই বিশ্বকাপ আমাকে কোচ হিসেবে আরও পরিণত করবে। আমরা ম্যাচের মধ্যে যা যা হতে পারে, সেসব নিয়ে বিশদ আলোচনা করেছিলাম। কিন্তু ফুটবলে মাঠের খেলাটাই আসল।’

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here