ঘরের মাঠে বলেই কি না রাশিয়ার চিত্র ভিন্ন। যেখানে বেশ উজ্জীবিত পুতিনের দেশ। যদিও গ্রুপ পর্বের শেষ ম্যাচে উরুগুয়ের সঙ্গে ৩-০ গোলের হার আত্মবিশ্বাসে চিড় ধরিয়েছে। তবে নক আউট পর্বে রাশিয়া কিন্তু দৃঢ় প্রত্যয়ী। হারের ম্যাচের ভুল শুধরে চমক দেখানোর প্রত্যাশায় দি গোল্ডেন ঈগলস শিবির।

কিন্তু প্রতিপক্ষ মনে কাঁপন ধরানো স্পেন। ২০১০ বিশ্বকাপের চ্যাম্পিয়ন তারা। গতবার গ্রুপ পর্ব থেকে বিদায় নেয়া স্প্যানিশ শিবির এবার পাখির চোখ করে আছে ফাইনাল খেলার জন্য। নক আউট পর্বে রাশিয়া যখন প্রতিপক্ষ, সহজ জয়ের হিসাবই কষছে হেরেইরা শিবির। আজ রাত ৮টায় মস্কোর লুঝনিকি স্টেডিয়ামে কোয়ার্টার ফাইনালে যাওয়ার লড়াইয়ে মুখোমুখি হবে স্পেন ও রাশিয়া।

গ্রুপ পর্বের পয়েন্ট প্রাপ্তির হিসাবে স্পেনের চেয়ে এগিয়ে রাশিয়া। তিন ম্যাচে ৬ পয়েন্ট, গ্রুপ রানার্স আপ। অন্যদিকে স্পেনও বি গ্রুপ রানার্স আপ। তবে পয়েন্ট ৫। রাশিয়া টানা দুটি ম্যাচেই জিতেছে ( সৌদি ও মিশর)। শেষ ম্যাচে উরুগুয়ের সঙ্গে হার। তবে বি গ্রুপে স্পেনের শুরুটা ছিল পর্তুগালের সঙ্গে ৩-৩ গোলে ড্র দিয়ে। দ্বিতীয় ম্যাচে ইরানের সঙ্গে ১-০ গোলের কষ্টার্জিত জয়। শেষ ম্যাচে আবার মরক্কোর সঙ্গে ২-২ গোলে ড্র।

সব মিলিয়ে গ্রুপ পর্বের পারফরম্যান্স স্পেনের নামের সঙ্গে বেমানান ছিল। সেই তুলনায় রাশিয়া বেশ উজ্জীবিত, তা বলাই যায়। তবে হেড টু হেডের বিবেচনায় কয়েক ক্রোশ এগিয়ে স্পেন। ১২ বারের মোকাবেলায় স্পেনের জয় ৬টি, রাশিয়ার দুটি। ড্র চারটি। বিশ্বকাপে এই প্রথমবারের মতো স্পেনের মুখোমুখি হতে যাচ্ছে রাশিয়া। র‌্যাংকিংয়ের তফাতটাও চোখে পড়ার মতো। স্পেন ১০, রাশিয়া ৭০।

নক আউট পর্বে রাশিয়া কতদিন পর খেলতে নামছে জানেন, ১১ হাজার ৭০৪ দিন পর। শেষবার ছিল ১৯৮৬ বিশ্বকাপে, ১৫ জুন। যেখানে অতিরিক্ত সময়ে বেলজিয়ামের সঙ্গে ৪-৩ গোলে হেরেছিল তৎকালীন সোভিয়েত ইউনিয়ন। আট বছর নক পর আউট পর্বে খেলছে স্পেনও, দিন হিসাবে রাশিয়ার চেয়ে অনেক কম, ২৯১২। ২০১০ বিশ্বকাপে হল্যান্ডকে হারিয়ে সেবার প্রথমবারের মতো সোনালি ট্রফিতে চুমু এঁকেছিল লা রোজা শিবির।

আরও কিছু পরিসংখ্যান অস্বস্তি দিতে পারে রাশিয়াকে। সোভিয়েন ইউনিয়ন ভেঙে যাওয়ার পর এখন পর্যন্ত স্পেনকে হারাতে পারেনি রাশিয়া (চার হার, দুই ড্র)। শেষ মোকাবেলার স্মৃতি গত বছরের নভেম্বরে প্রীতি ম্যাচে। রেজাল্ট ৩-৩। শেষ তিন ম্যাচে রাশিয়ার জালে মোটা ১০বার বল জড়িয়েছে স্পেন। এর মধ্যে সাতটিই গত ২০০৮ ইউরোতে। স্পেন টান ২৩ ম্যাচ অপরাজিত। এমন রেকর্ড নেই চলমান বিশ্বকাপের বাকি ৩১ দলের। স্পেনের শেষ হার দুই বছর আগে। ২০১৬ ইউরোর নক আউট পর্বে ইতালির সঙ্গে (২-০)।

চিত্র পরিষ্কার, স্পেনকে বিদায় করতে হলে রাশিয়াকে অতিমাত্রায় ভালো খেলতে হবে। নইলে বিদায় ঘন্টা বাজবে স্বাগতিকদের।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here