রাজধানীর কামরাঙ্গীর চর বেড়িবাঁধের বসুলপুর বড় মসজিদ এলাকায় ডোবার পাশে খেলছিল ছয় বছরের হৃদয় ও ইমন। খেলার ছলে হঠাৎ করে নোংরা ডোবায় তলিয়ে যায় হৃদয়। শিশু হলেও বন্ধুর মন বলে কথা। হৃদয়কে বাঁচাতে সেই ডোবায় ঝাঁপ দেয় ইমন। এরপর দুজনই নিখোঁজ।

রোববার দুপুর ১টার দিকে স্থানীয়দের প্রচেষ্টায় জীবিত উদ্ধার হয় হৃদয়। খবর পেয়ে তাতে যোগ দেয় ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের উদ্ধারকারী ডুবুরী দল। তবে সন্ধ্যা পর্যন্ত চেষ্টা চালিয়ে ইমনকে উদ্ধার করা যায়নি।

ফায়ার সার্ভিস অ্যান্ড সিভিল ডিফেন্সের কর্মকর্তা শহীদুর জানান, পূর্ব রসুলপুর মুকুলের বাড়ির ভাড়াটিয়া রজব আলীর ছেলে হৃদয় আর তার বন্ধু ইমন বাসার অদূরে বেড়িবাঁধের পাশে ময়লার স্তূপে খেলা করছিল। তারা ডোবার পানির কাছাকাছি গেলে এক পর্যায়ে হৃদয় ধীরে ধীরে তলিয়ে যেতে থাকে। এ সময় ইমন তাকে বাঁচাতে গেলে একইভাবে সেও তলিয়ে যায়।

দুই শিশুর চিৎকার শুনে আশপাশের মানুষ ছুটে আসে। দ্রুত ফায়ার সার্ভিসকে খবর দেওয়া হলে তারাও ঘটনাস্থলে ছুটে আসে।

সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে ফায়ার সার্ভিস কেন্দ্রীয় নিয়ন্ত্রণ কক্ষের কর্তব্যরত কর্মকর্তা রাসেল সিকদার বলেন, ‘রাত হওয়ায় আপাতত উদ্ধার অভিযান বন্ধ রয়েছে। ইমনকে উদ্ধার করতে না পারায় সোমবার সকাল থেকে আবারও অভিযান শুরু হবে।’

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here