দেশের পাটপণ্যের বিকাশে শেখ হাসিনা জুট টেক্সটাইল মিল নির্মাণ করার উদ্যোগ নিচ্ছে সরকার। এর মাধ্যমে প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে চাকরির সুযোগ সৃষ্টি ও পাটপণ্যের বহুমুখী উৎপাদন বাড়বে। সম্ভাবনাময়ী পাটশিল্পকে আরও এগিয়ে নিতে জামালপুরের মাদারগঞ্জে প্রায় ৫১৯ কোটি টাকায় প্রকল্পটি বাস্তবায়ন হবে।

মঙ্গলবার (৩ জুলাই) রাজধানীর শেরে বাংলা নগরে এনইসি সম্মেলন কক্ষে একনেক চেয়ারপারসন ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে একনেক সভায় প্রকল্পটির অনুমোদন দেয়া হয়।

আজকের সভায় মোট ৮টি প্রকল্পের অনুমোদন দেয়া হয়। একনেক সভা শেষে প্রকল্পগুলো নিয়ে সাংবাদিকদের ব্রিফ করেন পরিকল্পনামন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল।

শেখ হাসিনা স্পেশালাইজ জুট টেক্সটাইল মিল প্রকল্প সূত্রে জানা গেছে, অভ্যন্তরীণ ও বৈদেশিক বাজারে বহুমুখী পাটপণ্য উৎপাদন বাড়াতেই এ প্রকল্প হাতে নেয়া হয়েছে। এর উদ্দেশ্য হচ্ছে- পাট ও তুলা সংমিশ্রণে সাশ্রয়ী মূল্যে সুতা, কাপড় ও তৈরি পোশাক (বিশেষ করে ডেনিম প্যান্ট, জ্যাকেট, শার্ট) ইত্যাদি তৈরি ও বিক্রি করে অতিরিক্ত রফতানি আয় বৃদ্ধি করা। একইসঙ্গে পোশাক শিল্পের জন্য তিন স্তরের জিএসপি সুবিধা আদায় করার লক্ষ্যে পরিবেশ বান্ধব সংমিশ্রিত সুতা ও কাপড় উৎপাদন করা।

সরকার আশা করছে, এর মাধ্যমে প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে চাকরির সুযোগ সৃষ্টি ও বহুমুখী পণ্য উৎপাদন ও রপ্তানি করে ৭ম পঞ্চবার্ষিক পরিকল্পনা, ভিশন ২০২১ ও টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা অর্জন সহায়ক হবে।

প্রকল্পটি ২০২০ সাল নাগাদ বাস্তবায়ন হবে। এর জন্য প্রাক্কলিত ব্যয় ধরা হয়েছে ৫১৮ কোটি ৮৫ লাখ টাকা। সরকার থেকেই এর পুরো অর্থায়ন করা হবে।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here