নেইমার জুনিয়রকে ব্রাজিল দলের হৃদপিণ্ড বলা যেতে পারে। মেক্সিকোর বিরুদ্ধে গোল করে এবং করিয়ে তিনি দলকে তুলে দিলেন কোয়ার্টার ফাইনালে। দুটি গোলই এল দ্বিতীয়ার্ধে। নেইমার গোল করলেন ৫১ মিনিটের মাথায়। আর ৮৭ মিনিটে ফিরমিনোকে পাস দিয়ে গোলে অ্যাসিস্ট করলেন।

এবারের বিশ্বকাপে দুটি গোল হয়ে গেল নেইমারের। সঙ্গে অনেকগুলো গোলের অ্যাসিস্ট করলেন। লিওনেল মেসি ও ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোকে ছাপিয়ে বিশ্বকাপে শট থেকে গোল করার পার্সেন্টিসেও এগিয়ে গেলেন তিনি।

বিশ্বকাপে ব্রাজিলের হয়ে নেইমারের গোল সংখ্যা এখন ছয়টি। আর সেই গোল করতে তিনি গোলপোস্ট লক্ষ্য করে শট মেরেছেন মাত্র ৩৮ বার। মেসিরও বিশ্বকাপে ছয়টি গোল রয়েছে। তিনি সমসংখ্যক গোল করতে শট মেরেছেন ৬৭ বার। আর রোনালদো সাতটি গোলের জন্য শট মেরেছেন ৭৪ বার। ফলে শট থেকে গোল করার দিক থেকে মেসি ও রোনালদোকে পিছনে ফেললেন নেইমার।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here