পাবনার বেড়া উপজেলায় ঘুমন্ত মা, ভাই ও খালাকে চাপাতি দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করেছে মো. তুহিন নামের এক যুবক। আজ ভোরে উপজেলার নতুন ভারেঙ্গা ইউনিয়নের সোনাপদ্মা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। ঘটনার পর থেকে তুহিন পলাতক।

নিহতরা হলেন, তুহিনের মা বুলি খাতুন (৪০), ছোট ভাই তুষার (১০) ও খালা মরিয়ম (৫০)।

বেড়া সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আশীষ বিন হাসান জানান, ভোরে একটি তুহিন চাপাতি দিয়ে বাড়িতে ঘুমিয়ে থাকা মা, ভাই ও খালাকে কুপিয়ে হত্যা করে। এ সময় পাশের ঘর থেকে তুহিনের স্ত্রী ও প্রতিবেশীরা আসলে পালিয়ে যায় সে। তুহিন মানসিক ভারসাম্যহীন বলে তার স্ত্রী দাবি করলেও পুলিশ বিষয়টি খতিয়ে দেখছে বলেও জানান তিনি।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আরো জানান, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে মরদেহ উদ্ধার করে পাবনা জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে। তুহিনকে গ্রেফতারে অভিযান শুরু হয়েছে। এ ঘটনায় বেড়া থানায় হত্যা মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here