বিমানে করে বিশাল অজগর নিয়ে উঠে পড়েছিলেন এক ব্যক্তি। তাও আবার প্লাস্টিকের বস্তার ভেতরে ঢুকিয়ে লুকিয়ে রেখেছিলেন অজগরটিকে। যদিও নিরাপত্তা তল্লাশিতে ধরা পড়ে শেষ পর্যন্ত আটকা পড়েন তিনি।

যুক্তরাষ্ট্রের মিয়ামির বিমানে ওই ব্যক্তি হার্ড ড্রাইভের ভিতরে লুকিয়ে পাইথন নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে ধরা পড়েন। বিমান কর্তৃপক্ষের তরফে জানানো হল, বারবাডোসগামী ওই বিমানে সাপ সমেত ওই ব্যক্তিকে যাত্রা করতে দেয়া হয়নি।

গত রোববার মিয়ামি আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে এই ঘটনা জানাজানি হয়। মিয়ামি হেরাল্ডের প্রতিবেদনে জানানো হয়, নিরাপত্তা কর্মকর্তারা জানান, মালপত্রের ভিতরে অস্বাভাবিক কিছুর অবস্থান লক্ষ্য করায় তারা আরও তল্লাশি চালান। এরপর ব্যাগের ভিতর সাপটার অবস্থানের কথা জানতে পারেন।

যার কাছে সাপটি ছিল তার নাম এবং এয়ারলাইনের কে বা কারা ঘটনায় জড়িত ছিল তাদের নাম প্রকাশ করা হচ্ছে না।

সারি কোশেটজ নামে একজন মুখপাত্র জানান, বাগ্যের ভিতরে প্রথমে বোমা আছে বলে সন্দেহ করা হয়। কিন্তু পরবর্তীকালে দেখা যায় ব্যাগের ভিতরে হার্ড ড্রাইভে জ্যান্ত পাইথন রয়েছে। সাপটাকে ইউএস ফিশ অ্যান্ড ওয়াইল্ডলাইফ সার্ভিসের হাতে তুলে দেওয়া হয় এবং ওই ব্যক্তির জরিমানা করা হয়।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here