কলকাতার জনপ্রিয় নায়িকা কোয়েল মল্লিক। বাবা রঞ্জিত মল্লিক আরো বড় তারকা, স্বামী নিসপাল সিং রানে বিখ্যাত প্রযোজক। তারপরও কোয়েলকে সবাই তার নিজ গুণের জন্যই চেনে। কারণ তিনি টালিউডের অন্য নায়িকাদের চেয়ে অনেক আলাদা। সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে বাংলাদেশের আশ্রয় নেওয়া রোহিঙ্গাদের দেখতে আসার আগ্রহ প্রকাশ করেছেন তিনি।

যদিও বাংলাদেশের মাটিতে কোনো দিন পা রাখেননি কোয়েল, কিন্তু ঠিকই জানেন কুতুপালংয়ের রোহিঙ্গা শিবিরের কথা। তাই কক্সবাজার গিয়ে রোহিঙ্গা শিবিরের মানুষগুলোর সঙ্গে তার গল্প করার ইচ্ছা কলকাতার এই শীর্ষ নায়িকার। একই সঙ্গে অসহায় এই নির্যাতিত মানুষগুলোকে আম্রয় দেওয়ার জন্য তিনি কুর্নিশ জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রীর শেখ হাসিনার প্রতি।

শেখ হাসিনার প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে কোয়েল বলেন, ‘ বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীর এত মায়া-মমতা, ভালোবাসা, এতগুলো গৃহহীন মানুষকে নিজের দেশে জায়গা দিয়েছেন, আমি তাকে কুর্নিশ জানাই’

বিষণ্ন হয়ে রোহিঙ্গা শিবিরের কথা বলতে গিয়ে কোয়েল বলেন, ‘আমিও যেতে চাই কুতুপালং। ওখানকার মেয়েদের সঙ্গে, বাচ্চাদের সঙ্গে কথা বলতে চাই। সারা দুনিয়ার মানুষদের জানাতে চাই ওদের জীবনের কষ্টের কথা।’

বর্তমানে ইউনিসেফের হয়ে গার্ল চাইল্ডের ক্যাম্পেইন করেছেন, মানসিক প্রতিবন্ধী শিশুদের নিয়ে কাজ করেন কোয়েল। তবে আক্ষেপের সুরে বললেন, বাংলাদেশে এখনো যাওয়া হয়নি। কক্সবাজারের বিচের কথা, বান্দরবানের কথা, সিলেটের পার্বত্য অঞ্চলের কথা অনেক শুনেছি। সিলেটের সাতরঙা চা খাওয়ারও খুব ইচ্ছা আছে।’

ইলিশ শুনলেই জিবে জল আসে, আর বাংলাদেশের ইলিশ হলে তো কোনো কথাই নেই—জানিয়েছেন কলকাতার ঘটিবাড়ির মেয়ে কোয়েল।

‘আমি বাঙাল কথা বলতে পারি না, কিন্তু খুব মন দিয়ে শুনি যখন মানুষ বাঙাল কথা বলে। এত মিষ্টি লাগে, খুব প্রেমের ভাষা মনে হয়’—বলে খিলখিল করে হেসে উঠলেন টালিউডের রোমান্টিক সিনেমার সফলতম এই অভিনেত্রী।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here