যে শিখদের কোনও আচার মানে না, তার ‘কৌর’ নামটি ব্যবহার করারও অনুমতি নেই। এতে শিখদের ভাবাবেগে আঘাত লাগতে পারে। তাই মুক্তির আগেই বিতর্কে পড়েছে সাবেক পর্নো তারকা বলিউড অভিনেত্রী সানি লিওনের বায়োপিক। আপত্তি উঠেছে বায়োপিকের নাম নিয়ে।

ওয়েব সিরিজের নাম থেকে ‘কৌর’ শব্দটি হটাতে হবে। এমনই দাবিতে সম্প্রতি শ্রীমণি গুরুদ্বার প্রাবন্ধিক কমিটি এই ওয়েব সিরিজের নাম নিয়ে আপত্তি তুলেছে। সংস্থার মুখপাত্র দিলজিৎ সিং বেদি জানিয়েছেন, কৌর খুব সম্মানজনক নাম। শিখ গুরুরা শিখ মহিলাদের এই নাম দেন। একজন মহিলা, যে শিখদের কোনও আচার মানে না, তার ‘কৌর’ নামটি ব্যবহার করারও অনুমতি নেই। এতে শিখদের ভাবাবেগে আঘাত লাগতে পারে। শিখরা সানিকে এই নাম ব্যবহার করার অনুমতি দেবে না। ‘কৌর’ পদবি ব্যবহার করার জন্য সানি লিওনকে জনসমক্ষে ক্ষমা চাইতে হবে বলেও জানায় সংস্থা।

ইস্ত্রি অকালি দলের প্রেসিডেন্ট বিবি জাগির কৌরও শ্রীমণি গুরুদ্বার প্রাবন্ধিক কমিটির সঙ্গে একমত। তার মতে, সানি নাকি নিজের বায়োপিকের সাফল্যের জন্য ‘কৌর’ পদবি ব্যবহার করেছেন। সানি জানেন না যে তার এই ‘কৌর’ ব্যবহার শিখদের ভাবাবেগে আঘাত করবে।

নার্স হওয়ার যখন পড়াশোনা করছিলেন সানি, তখন এক ডান্সার বন্ধুর মারফত আলাপ হয় এক ম্যাগাজিনের ফটোগ্রাফারের সঙ্গে। সেখান থেকেই খোলে পর্ন ইন্ডাস্ট্রির দরজা। রাতারাতি বদলে যায় তাঁর জীবন৷ আবার সে ইন্ডাস্ট্রির শীর্ষে থাকতে থাকতেই চলে আসেন বিগ বসের আসরে৷ সেখান থেকে একটার পর একটা বলিউডি ছবিতে অভিনয় করে চলেছেন।

সানি নিজেও জীবনের এই যাত্রাপথ তুলে রাখতে চান৷কারণ বলিউডের একজন অভিনেত্রী হওয়া সত্ত্বেও তার অতীত নিয়ে কৌতূহলের শেষ নেই৷ অনেকেই ভাবেন, তিনি বোধহয় পর্নস্টারই হতে চেয়েছিলেন৷ কিন্তু সত্যিটা কি তা জানা যাবে এই সিরিজে।

আপাতত ‘কৌর’ নিয়ে সমস্যায় লিওন। সিরিজে কৌর থাকবে নাকি ছেঁটে ফেলা হবে তা শুধু এখন সময়ের অপেক্ষায়।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here