অ্যান্টিগায় প্রথম টেস্টে লজ্জাজনক হারের পর জ্যামাইকায়ও ওয়েস্ট ইন্ডিজের কাছে বড় রানে হেরেছে সাকিব-মুশফিকরা। ফলে দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজের দুটিতেই হেরে হোয়াইটওয়াশ হয়েছে বাংলাদেশ। ম্যাচের তৃতীয় দিন ৩৩৫ রানের লক্ষ্যে খেলতে নেমে ১৬৮ রানে অল আউট হয়ে যায় সাকিব আল হাসানের দল। ম্যাচ সেরা ও সিরিজ সেরা হয়েছেন ক্যারিবীয় অধিনায়ক জেসন হোল্ডার।

শনিবার জয়ের জন্য ৩৩৫ রানের লক্ষ্যে খেলতে নেমে শুরুতেই ওপেনার তামিম ইকবালকে হারায় বাংলাদেশ। তিন নম্বরে নামা মোমিনুল হকের সঙ্গে জুটি গড়ে দলকে আশা দেখাচ্ছিলেন অন্য ওপেনার লিটন দাস। কিন্তু দলীয় ৪০ রানের মাথায় ৩৩ রান করে আউট হয়ে যান লিটন। তারপর বাংলাদেশের ইনিংস ছিল মূলত নিয়মিত ব্যবধানে উইকেট পতনের প্রদর্শনী।

ব্যাটিংয়ের ধ্বংসস্তুপে একটাই খানিকটা লড়েছেন সাকিব

যদিও ধংসস্তুপে দাঁড়িয়ে একাই লড়াই করেছেন টাইগার অধিনায়ক সাকিব। ১০টি চারের মারে ৫৪ রান করেন তিনি। কিন্তু দলীয় ১৬২ রানে সাকিব আউট হলে আর মাত্র ৬ রান স্থায়ী হয় বাংলাদেশের ইনিংস। মুশফিক ৩১ রান করে কিছুটা প্রতিরোধের চেষ্টা করেন। কিন্তু স্বাগতিকদের কাছে ১৬৬ রানের হার এড়াতে সেটি যথেষ্ট ছিল না।

এই টেস্টে বাংলাদেশের ব্যাটিং লাইন আপ গুড়িয়ে দিতে নেতৃত্ব দেন ক্যারিবিয় অধিনায়ক হোল্ডার নিজে। প্রথম ইনিংসে ৫ উইকেট ও দ্বিতীয় ইনিংসে ৬ উইকেট নেন তিনি।

জেসন হোল্ডারের উইকেট নেওয়ার উল্লাস

এর আগে নিজেদের দ্বিতীয় ইনিংসে ১২৯ রানেই অল আউট হয়ে যায় ওয়েস্ট ইন্ডিজ। তাতেই অবশ্য ৩৩৪ রানের লিড পেয়ে যায় তারা। মূলত সাকিব আল হাসানের ঘূর্ণিতেই ধসে যায় স্বাগতিকদের ব্যাটিং লাইন আপ। ৩৩ রান দিয়ে ৬ উইকেট নেন সাকিব। ওয়েস্ট ইন্ডিজ নিদের প্রথম ইনিংসে ৩৫৪ রান করে অল আউট হয়। মেহেদী হাসান মিরাজ ৯৩ রানে ৫ উইকেট নেন। আর বাংলাদেশ নিজেদের প্রথম ইনিংসে করে ১৪৯ রান।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here