ছাগলে গাছ খাওয়াকে কেন্দ্র করে মো. আব্দুল হাই (৬০) নামে এক বৃদ্ধকে কুপিয়ে হত্যার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় দুজনকে আটক করেছে পুলিশ। সোমবার দুপুর সাড়ে ১২টায় দিনাজপুরের বীরগঞ্জ উপজেলার ৮নং ভোগনগর ইউনিয়নের চাউলিয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত মো. আব্দুল হাই ওই গ্রামের মৃত আব্দুর রহিমের ছেলে। আটকরা হলেন একই গ্রামের মো. জালাল উদ্দিনের ছেলে মো. মোফাজ্জল হোসেন ও আব্দুল করিমের ছেলে আব্দুস সাত্তার।

সোমবার দুপুর সাড়ে ১২টার সময় বীরগঞ্জ উপজেলার ৮নং ভোগনগর ইউনিয়নের চাউলিয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

বীরগঞ্জ থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) দুলাল হক বলেন, দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে মো. আব্দুল হাইয়ের তিনটি ছাগল বাড়ির পাশে মো. মোফাজ্জল হোসেনের নার্সারিতে প্রবেশ করে কয়েকটি চারা গাছ খেয়ে ফেলে। নার্সারি মালিক মো. মোফাজ্জল হোসেন ছাগলগুলোকে আটক করে রাখে। এ নিয়ে আব্দুল হাই ও মোফাজ্জল হোসেনের মধ্যে বাগবিতণ্ডা ও হাতাহাতি হয়। এসময় মোফাজ্জল হোসেন বাড়ি থেকে বটি নিয়ে এসে আব্দুল হাইয়ের পেটে কোপ দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই আব্দুল হাই মারা যায়। এ সময় এলাকাবাসী মোফাজ্জল হোসেনকে আটক করে রাখে।

পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে মোফাজ্জল হোসেনকে এবং তার চাচা আব্দুস সাত্তারকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে। ঘাতক মোফাজ্জল হোসেন নিহত আব্দুল হাইয়ের ভাগনে বলেও জানিয়েছেন তিনি।

বীরগঞ্জ থানার অফিসার্স ইনচার্জ (ওসি) শাকিলা পারভীন জানান, লাশ ময়না তদন্তের জন্য এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। মামলার প্রস্তুতি চলছে।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here