দত্তকের নামে অনাথ ও অসহায় শিশুদের ধনী ব্যক্তিদের কাছে বিক্রির অভিযোগে মাদার তেরেসার সব হোম নিয়ে তদন্তের নির্দেশ দিয়েছে ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার। দেশটির বিভিন্ন রাজ্যে মাদার তেরেসার যেসব হোম আছে সেগুলোর কার্যাবলী খতিয়ে দেখতেও রাজ্য সরকারকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

সম্প্রতি অবৈধভাবে শিশু দত্তক দেয়ার বেশ কিছু অভিযোগ উঠে ঝাড়খণ্ডের মিশনারিজ চ্যারিটি আশ্রয়কেন্দ্র থেকে। উত্তর প্রদেশের এক দম্পতিও অভিযোগ এনেছেন, টাকা নিয়েও তাদের হাতে শিশুকে তুলে দেওয়া হয়নি।

দত্তক আইনের সংস্কার আনার পর থেকেই ভিন্ন উপায়ে শিশু বিক্রি হচ্ছে বলে অভিযোগ আনা হয়। এরপরই সক্রিয় হয় পুলিশ। তারপরেই মিশনারীর এক সিস্টার ও এক নারী কর্মীকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

তদন্তে জানা গেছে, প্রায় ২৮০ শিশুর কোনও হদিশই নেই। রেজিস্টারেও অনেক গাফিলতি আছে। মাদার তেরেসার সব কয়েকটি হোম নিবন্ধিত কিনা এবং দেশের সর্বোচ্চ দত্তক প্রতিষ্ঠান সিএআরএর সঙ্গে যুক্ত আছে কিনা সে বিষয়ে এক মাসের মধ্যে নিশ্চিত করতে রাজ্য সরকারকে আহ্বান জানিয়েছেন নারী ও শিশু উন্নয়ন মন্ত্রী মানেকা গান্ধী।

গত বছরের ডিসেম্বর থেকে ২৩০০টি চাইল্ড কেয়ার সেন্টার সিএআরএর সঙ্গে যুক্ত। তবে এখনও আরও ৪ হাজার চাইল্ড কেয়ার সেন্টার এখনও সিএআরএর আওতায় আসেনি।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here