টাঙ্গাইল শহরে পুলিশের একটি গাড়ির গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণে তিনজন নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় পুলিশ সদস্যসহ চারজন আহত হয়েছেন।

মঙ্গলবার ভোর ৫টার দিকে শহরের কুমুদিনী কলেজ মোড়ে এ ঘটনা ঘটে। নিহতরা হলেন- নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁও চৌধুরীবাড়ী এলাকার স্কুলছাত্রী জান্নাতুল ফেরদৌস বর্ণা (১৯), তার খালাতো ভাই ফারুক (৪২) এবং মামা সিরাজুল ইসলাম (৫৫)।

নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁও থানার এসআই তানভীর আহমেদ জানান, নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁও থানা থেকে মাইক্রোবাস নিয়ে তারা কয়েকজন পুলিশ সদস্যসহ অপহৃত জান্নাতুল ফেরদৌস বর্ণাকে উদ্ধার করতে রাজশাহী যায়। সেখান থেকে ফেরার পথে টাঙ্গাইল শহরের নতুন বাসস্ট্যান্ড সিএনজি পাম্প থেকে গ্যাস নিয়ে নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁওয়ের উদ্দেশে রওনা হয়।

বিস্ফোরণে আহত পুলিশ সদস্য

শহরের কুমুদিনী কলেজ মোড় সড়কে স্পিড ব্রেকারের প্রচণ্ড ঝাঁকুনিতে মাক্রোবাসের পিছনে থানা গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরিত হয়ে মুর্হূতের মধ্যেই গাড়িতে আগুন লেগে যায়। এতে ঘটনাস্থলেই জান্নাতুল ফেরদৌস বর্ণা ও তার খালাতো ভাই ফারুক নিহত হয়। গুরুতর আহত অবস্থায় পাঁচজনকে টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে সেখানে বর্ণার মামা সিরাজুল ইসলামের মৃত্যু হয়।

অন্য আহতরা হলেন, নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁও থানার এসআই তানভীর (৩৩), এএসআই হাবিব (৩০), পুলিশ কনস্টেবল আজাহার (৪৫) ও মাইক্রোবাস চালক মুন্সিগঞ্জ জেলার গজারিয়া এলাকার আকতার (৩৫)। তাদের টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here