রাজকুমার হিরানি পরিচালিত ‘সঞ্জু’ সিনেমার মধ্য দিয়ে বলিউডের জনপ্রিয় নায়ক সঞ্জয় দত্তের তরুণ বয়সে মাদকাসক্তির কথা সবার সামনে এসেছে। তবে সেসব থেকে একসময় বেরিয়েও এসেছিলেন তিনি৷ তবে সম্প্রতি সঞ্জু সিনেমা নিয়ে কথা বলতে গিয়ে জীবনের ওই অন্ধকার সময়গুলোর সম্পর্কে আরো ভয়াবহ তথ্য দিয়েছেন সঞ্জয়।

তিনি জানান, সে সময় তার ড্রাগ নেওয়ার মাত্রা নাকি এতটাই বেড়ে গিয়েছিল যে, তাকে কামড়ালে মশাও মারা যেত।

একদিনের অভিজ্ঞতা জানাতে গিয়ে সঞ্জয় বলেন, শুয়েছিলেন তিনি, আর একটি মশা তার চারপাশে ঘোরাফেরা করছিল৷ সেই মশা একসময় তাকে কামড়ালো, তার রক্ত খেল, কিন্তু তারপর সে আর উড়তে পারল না৷ সেখানেই পড়ে গিয়ে ছটফট করতে থাকল৷

আর এই ঘটনা একবার নয় বহুবার ঘটেছে৷ এতটাই তার রক্ত বিষাক্ত হয়ে গিয়েছিল যে মশারাও মারা যাচ্ছিল৷ কখনও কখনও নিজের এই অবস্থা দেখে হেসে ফেলতেন তিনি৷

জেলে থাকা প্রসঙ্গে জানান তিনি, ইয়ারওয়াড়া জেলে ছিলেন৷ সেখানে অনেক বন্দি তার ভক্ত ছিল৷ সঞ্জয়ের কথা শুনে তারা খুশি হত৷ তাদের জন্যই যে জেলে সময় কাটানো সহজ হয়েছে৷

নিজের সন্তানদের বিষয়ে বলতে গিয়ে তিনি বলেন, সন্তানরা পড়াশোনা করুক, ভালো ডিগ্রি নিক, তারপর যা তাদের ইচ্ছে সেই কাজ করুক, যাতে তিনি পাশে থাকবেন৷ তিনি অঙ্কে কাঁচা হওয়ায় ক্রাফ্ট আর পেন্টিংয়ে তাদের সাহায্য করেন, কপট স্বীকারোক্তি সঞ্জুবাবার৷

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here