বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া কারাগারে এখনও গুরুতর অসুস্থ। জ্বর ও শরীরে প্রচণ্ড ব্যথায় তিনি কাবু হয়ে পড়েছেন বলে জানিয়েছেন বিএনপির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী। আজ রোববার সকালে রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আয়োজিত প্রেস ব্রিফিংয়ে এসব কথা বলেন রিজভী।

রিজভী জানান, গতকাল সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়ার আইনজীবী ও পরিবারের সদস্যরা কারাগারে তার সঙ্গে সাক্ষাৎ করেছেন। কিন্তু তিনি এখনও গুরুতর অসুস্থ। তিনি দর্শনার্থীদের সঙ্গে নিচে নেমে কথা বলেন, কিন্তু এখন তিনি খুব বেশি অসুস্থতার কারণে দোতলা থেকে নিচে নামতেই পারছেন না। এখনও তিনি মারাত্মক স্বাস্থ্যঝুঁকিতে রয়েছেন। তাঁর হাঁটা-চলা করতে কষ্ট হয়। অর্থাৎ তাঁর শারীরিক সমস্যা আরো বৃদ্ধি পেয়েছে। কারাগারে অবর্ণনীয় কষ্টে রাখার জন্যই তার অসুস্থতা দিনকে দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে।

প্রেস ব্রিফিংয়ে বিএনপি নেতারা

বারবার ইউনাইটেড হাসপাতালে খালেদা জিয়ার চিকিৎসার দাবি জানানো হলেও সরকার ভ্রুক্ষেপহীন ও উদাসীন অভিযোগ করে রিজভী বলেন, যেন শারীরিকভাবে যন্ত্রণা দিতেই খালেদা জিয়াকে কারাগারের লাল দেয়ালের মধ্যে আটকিয়ে রাখা হয়েছে। এটা যেন এক ভয়াবহ প্রতিহিংসা চরিতার্থ করার লক্ষ্য নিয়েই পরিকল্পনা প্রণয়ন করে এখন তা বাস্তবায়ন করা হচ্ছে। দেশনেত্রীর ওপর সরকার প্রধানের এই প্রতিহিংসা এক অশুভ অপশাসনেরই বার্তা দেয়। আমরা আবারও দলের পক্ষ থেকে সরকারের এই নির্দয় আচরণের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি এবং অবিলম্বে তাঁর চিকিৎসার জন্য ইউনাইটেড হাসপাতালে ভর্তির যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণের আহ্বান জানাচ্ছি।

প্রেস ব্রিফিংয়ে রিজভী বলেন, রাজশাহী জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক ও বিএনপি জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য অ্যাডভোকেট এ কে এম মতিউর রহমান মন্টুকে গতকাল গভীর রাতে তার রাজশাহীর বাসা থেকে গোয়েন্দা পুলিশ গ্রেপ্তার করলেও এখনও পর্যন্ত তাকে গ্রেপ্তারের বিষয়টি স্বীকার করছে না। নির্বাচনকে ঘিরে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর বারবার বিবেকহীন এই নিষ্ঠুর আচরণের পুনরাবৃত্তি বিএনপি এবং দেশের মানুষের মনে আরো গভীর উদ্বেগ ও শঙ্কা চিরস্থায়ী রূপ নিয়েছে। আমি তাকে গ্রেপ্তার ও গ্রেপ্তারের বিষয়ে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর অস্বীকারে গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করছি এবং অবিলম্বে তার অবস্থান নিশ্চিত করার জোর দাবি জানাচ্ছি।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here