নীলফামারীর ডিমলায় প্রেমের প্রস্তাব প্রত্যাখান করায় ছামিয়া আক্তার সীমা নামে এক কলেজছাত্রী মারপিটের অভিযোগ উঠেছে। রোববার সকালে উপজেলার গয়াবাড়ী ইউনিয়নের মতির বাজার এলাকায় এই ঘটনা ঘটে।

আহত সীমা ওই ইউনিয়নের পশ্চিম খড়িবাড়ী গ্রামের আব্দুর রহিমের মেয়ে ও গয়াখড়িবাড়ী মহিলা কলেজের এইচএসসি দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্রী।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, পশ্চিম খড়িবাড়ী গ্রামের আমজাদ হোসেনের ছেলে শামীম ওরফে বাবু (২১) দীর্ঘদিন থেকে সীমাকে প্রেমের প্রস্তাব দিয়ে আসছিল। এ বিষয়টি নিয়ে একাধিকবার পারিবারিক ভাবে সালিশ হয়েছে। বোরবার সকালে ছাত্রীটি কলেজ যাওয়ার পথে মতির বাজারের পশ্চিম পাশে স্থানীয় আজিজার রহমানের বাড়ি সংলগ্ন রাস্তায় তার পথরোধ করে শামীম। পরে থাকে এলাপাথারী চড়-থাপ্পড় মারে। এ সময় ওই ছাত্রীর চিৎকারে এলাকাবাসী এগিয়ে আসলে শামীম পালিয়ে যায়। পরে সীমাকে স্থানীয় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

সীমার মা জাহানারা বেগম বলেন, দীর্ঘদিন থেকে আমার মেয়েকে বখাটে শামীম উত্যক্ত করে আসছিল। বিষয়টি তার পরিবারকে জানানো করা হলে সে ক্ষিপ্ত হয়ে ঘটনাটি ঘটিয়েছে। এ ঘটনায় থানায় অভিযোগের প্রস্তুতি চলছে।

শামীম পালিয়ে যাওয়ার সময় এসিড ছোঁড়ার হুমকি দিয়েছে বলে অভিযোগ করেছে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছামিনা আক্তার সীমা।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here