ইতালির প্রত্যাত শিল্পী লিওনার্দো দ্য ভিঞ্চির আঁকা ‘মোনালিসা’ ছবিটি দেখেননি এমন মানুষ খুব কমই আছে। মোনালিসা হলো তেলচিত্রে আঁকা চেয়ারে বসে থাকা এক নারীর অর্ধ প্রতিকৃতি। তবে এই শিল্পকর্মটি যতটা না ওই নারীর চেহারার সৌন্দর্যের জন্য আলোচিত, প্রশংসিত। তার চেয়ে ঢের বেশি সমাদৃত তার মুখের কোণে ফুটে ওঠা নতুন চাঁদের মতো চিলতে হাসির জন্য।

কিন্তু নতুন করে আবিষ্কার হওয়া ভিঞ্চির একটি ছবি আবারো আলোচনায় নিয়ে এসেছে মোনালিসা নামের রহস্যময় সেই নারীকে। শিল্প বিশেষজ্ঞরা বলছেন, প্রাথমিকভাবে হয়তো মোনালিসার নগ্ন ছবিই এঁকেছিলেন ভিঞ্চি।

চারকোলে আঁকা এ ছবি সামনে আসা মাত্র বিশেষজ্ঞদের মধ্যে সাড়া পড়ে গিয়েছে। রেনেসাঁ পর্বের এ ছবিতে লিওনার্দোর হাতের ছোঁয়া আছে বলেই মনে করছেন অনেকে। অন্তত নগ্নিকার শারীরিক গঠনে মোনালিসার সঙ্গে সাদৃশ্য পাচ্ছেন অনেকেই।

উত্তর ফ্রান্সের এক মিউজিয়ামে পুরনো ছবির মধ্যেই লুকিয়ে ছিল এই নগ্নিকার প্রতিকৃতি। প্যারিসের লুভ্যর মিউজিয়ামে ছবিটির পরীক্ষা করা হয়। তাতে এটি লিওনার্দো ঘরানার ছবি বলেই ধারণা পরীক্ষকদের। তবে বিশেষজ্ঞরা আরও প্রমাণ চাইছেন। আপাতত কী দেখে এটি মোনালিসার সমগোত্রীয় নগ্নিকা বলে মনে হচ্ছে বিশেষজ্ঞদের?
মোনালিসার যে ছবি পরিচিত তার হাত ও শরীরের আঁকার ধরন প্রায় একইরকম। দুটি পোট্রেটের সাইজও প্রায় এক। ছবির আশেপাশে সূক্ষ্ম ছিদ্র আছে, যা দেখে অনুমান করা হচ্ছে, ক্যানভাসে এ প্রতিকৃতি ফুটিয়ে তুলতেই চাওযা হয়েছিল। মিউজিয়ামের অভিজ্ঞ কিউরেটরের মতে, চারকোল পেন্টিংটি দেখে মনেই হচ্ছে, কেউ অয়েল পেন্টিংয়ের জন্যই এটি স্কেচ করেছিলেন।

তবে এটাই মোনালিসার আগের ছবি কিনা, তা এখনই নিশ্চিত করে বলা যাচ্ছে না। তবে বিশেষজ্ঞদের মতে, এ ছবিতে যে লিওনার্দোর ছোঁয়া আছে তা আঁকার ধরনে স্পষ্ট। আর তা থেকেই মনে করা হচ্ছে, মোনালিসাকে সম্ভবত নগ্নিকা হিসেবেই প্রথম আঁকতে চেয়েছিলেন ভিঞ্চি। তবে আরও পরীক্ষার পরই তা বলা যাবে।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here