ওয়ানডে সিরিজের শুরুটা ছিল মনের মতোন। দাপুটে ঢঙে মিলেছিল স্বস্তির জয়। গায়ানা হয়ে উঠেছিল সুখস্মৃতির অংশ। কিন্তু সেই গায়ানার বাতাস আফসোস আর আহাজারিতে ভারি হবে দ্বিতীয় ওয়ানডেতে, তা কেউ ভেবেছিল? কিন্তু শেষের গল্পটাতো চরম দুঃখ আর হতাশার। তীরে এসে ডুবল তরী। হার মাত্র ৩ রানে। সিরিজ জেতার অপেক্ষাটা বাড়ল। গায়ানা থেকে সেন্ট কিটসের ওয়ার্নার পার্ক। এখানেই আজ অনুষ্ঠিত হবে বাংলাশে-ওয়েস্ট ইন্ডিজের মধ্যকার তৃতীয় ও শেষ ওযানডে ম্যাচ। সিরিজ নির্ধারণী ম্যাচ। ফলে অনুমিতভাবে যা রূপ নিচ্ছে ফাইনালে। ম্যাচটি শুরু হবে বাংলাদেশ সময় সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায়।

নিশ্চিত জয়ের আবহ অনেকবার পরাজয়ের দুঃখগাঁথা হিসাবে লিপিবদ্ধ রয়েছে বাংলাদেশের ক্রিকেট ইতিহাসে। এশিয়া কাপে পাকিস্তানের সঙ্গে দুই রানে হার। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ভারতের সঙ্গে এক রানে হার। যেখানে গল্পটা হতে পারত উৎসবের, কিন্তু শেষটা বিষাদের। গায়ানায় দ্বিতীয় ওয়ানডে ম্যাচে পুনরাবৃত্তি অতীত তিক্ত স্মৃতির।

তৃতীয় ও শেষ ওয়ানডে ম্যাচ হবে সেন্ট কিটসে। তবে ফিরে আসছে গায়ানার সুখ-দুঃখের স্মৃতি। প্রথম ম্যাচে ৪৮ রানের বীরত্বের জয়। একই ভেন্যুতে দ্বিতীয় ম্যাচে ৩ রানের অবিশ্বাস্য হার। আজ সেন্ট কিটসে যারা ভালো করবে, সিরিজের ট্রফিতে চুমু আঁকবে তারাই। বাংলাদেশ পারবে তৃতীয় ম্যাচে ঘুরে দাঁড়াতে? নাকি গেইল-লুইসরদের দাপট দেখা যাবে এই মাঠে। আকারে অনেকটা ছোট সেন্ট কিটসের মাঠ। যেখানে গেইলরা হয়ে উঠতে পারেন বিধ্বংসীরূপে। যা বাংলাদেশের জন্য হুমকিস্বরুপ।

ভুল থেকে শিক্ষা গ্রহণ কমই দেখা যাচ্ছে বাংলাদেশের বেলায়। না হলে দ্বিতীয় ম্যাচে নিঃশ্বাস দূরুত্বে জয় কিভাবে অস্পর্শ হয়ে যায়। শেষ ওভারে জয়ের জন্য দরকার ছিল ৮ রান। কিন্তু আসল ৪ রান। দুই ওভারে রানের দরকার ছিল ১৪। হতাশার বিষয় হলো শেষ দুই ওভারে আসেনি একটি বাউন্ডারিও। শেষের দিকে দুশ্চিন্তা ছিল না উইকেট নিয়ে। হাতে তখন চার উইকেট। কিন্তু শেষটা মধুর করতে পারেননি তরুণ মোসাদ্দেক ও অভিজ্ঞ ক্যাপ্টেন মাশরাফি বিন মর্তুজা।

সেন্ট কিটসে আজ সিরিজ জিততে হলে দুর্দান্ত খেলার বিকল্প নাই বাংলাদেশের। আর সেই কাজটি করতেই মুখিয়ে আছে মাশরাফি বিগ্রেড। গায়ানার শেষ ম্যাচের দুঃখস্মৃতি ভুলে সেন্ট কিটসে আলো ফুটানোর দায়িত্ব টাইগাররে। শেষ ম্যাচের জয় বদলে দেবে অনেক কিছু। সিরিজের ট্রফি করায়ত্তের পাশাপাশি মিলবে র‌্যাংকিংয়ে বেশকটি রেটিং পয়েন্ট। ওয়ানডে র‌্যাংকিংয়ে বাংলাদেশ তখন নিঃশ্বাস ফেলবে ছয়ে থাকা অস্ট্রেলিয়ার ঘাড়ে। আজ পারবে তো বাংলাদেশ?

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here