নির্বাচনে জাতীয় পরিষদে সংখ্যাগরিষ্ঠতা অর্জনের পর এবার সরকার গঠনের প্রস্তুতি শুরু করেছেন পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফের (পিটিআই) চেয়ারম্যান ইমরান খান।

শনিবার ডন নিউজের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, কেন্দ্রের পাশাপাশি পাঞ্জাবেও সরকার গঠনের প্রচেষ্টা শুরু করেছে পিটিআই। এ লক্ষ্যে দলটির পক্ষ থেকে পাঞ্জাবের ছোট দল ও স্বতন্ত্র প্রার্থীদের সঙ্গে যোগাযোগ করা হচ্ছে।

এরই মধ্যে পিটিআই নেতা জাহাঙ্গীর তারিন টেলিফোনে মুত্তাহিদ্দা কওমি মুভমেন্টের (এমকিউএম) একাংশের প্রধান খালিদ মকবুল সিদ্দিকীর সঙ্গে যোগাযোগ করেছেন।

শুক্রবার ইসলামাবাদে মুত্তাহিদ্দা মজলিস-ই-আমল (এমএমএ) নেতা ও জামিয়াত উলেমো-ই-ইসলাম (জেইউআই-এফ) প্রধান মাওলানা ফজলুর রহমান আয়োজিত মাল্টি-পার্টি কনফারেন্সে (এমপিসি) যোগ দেয়নি পিপিপি ও এমকিউএমের এই অংশটি।

পিটিআই মুখপাত্র ফাওয়াদ চৌধুরীর দাবি, তাদের দল জাতীয় পরিষদের ২৭০টি আসনের মধ্যে প্রয়োজনীয় ১৩৭টি আসন নিশ্চিত করেছে। ফলে তারা সহজেই কেন্দ্রে সরকার গঠন করতে পারবে।

তিনি আরও দাবি করেন, পাঞ্জাবে পিটিআইয়ের প্রার্থীরা ১৩০টি আসনে বিজয়ী হয়েছে, যেখানে সাবেক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফের দল পিএমএল-এন ১২৭টি আসনে বিজয়ী হয়েছে বলে নির্বাচনের বেসরকারি ফলে বলা হচ্ছে।

ফাওয়াদ চৌধুরী বলেন, ‘পাঞ্জাবে আমরা স্বতন্ত্র ২১ জন প্রার্থীর সঙ্গে যোগাযোগ করছি এবং সেখানে নিশ্চিতভাবেই আমরা সরকার গঠন করবো।’

এক্ষেত্রে পাঞ্জাব ও খাইবার পাখতুনখাওয়া প্রদেশে নতুন মুখ্যমন্ত্রী কে হচ্ছেন জানতে চাইলে তিনি বলেন, দলের চেয়ারম্যান ইমরান খান এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেবেন।

বেলুচিস্তান প্রদেশের বিষয়ে জানতে চাইলে ফাওয়াদ চৌধুরী বলেন, বেলুচিস্তানে পিটিআই যে অবস্থানে আছে তাতে সেখানেও তারা একটি জোট সরকার গঠনের ব্যাপারে আশাবাদী।

এদিকে, পাকিস্তানে নিযুক্ত সৌদি আরবের রাষ্ট্রদূত ভাইস অ্যাডমিরাল (অব.) হাশাম বিন সিদ্দিক শুক্রবার ইমরান খানের বানিগালার বাসভবনে গিয়ে তার সঙ্গে দেখা করে নির্বাচনে সাফল্যের জন্য সৌদি সরকারের পক্ষ থেকে তাকে অভিনন্দন জানিয়েছেন।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here