রাজধানীতে বেপরোয়া বাসের চাপায় দুই শিক্ষার্থীর মৃত্যুর ঘটনার পর থেকে সমালোচনার মুখে নৌপরিবহন মন্ত্রী শাহজাহান খান। সচিবালয়ে এ বিষয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে হাসিমুখে ভারতের একটি উদাহরণ টেনে বক্তব্য দেয়ায় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে তোপের মুখে পড়েন তিনি।

এসময় অনেকেই তাকে ব্যর্থতার দায় নিয়ে পদত্যাগের আহ্বান জানান। কিন্তু পদত্যাগের বিষয়টি আমলে নিচ্ছেন না মন্ত্রী।

আজ সোমবার সচিবালয়ে সাংবাদিকদের তিনি বলেন, পদত্যাগ করেলই সমস্যার সমাধান হবে না। দোষী বাসচালকের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে। সেক্ষেত্রে আমরা যারা মালিক-শ্রমিক আছি তারা এ নিয়ে আন্দোলন করার কারণ দেখছি না। কারণ প্রাথমিকভাবে আমরা মনে করছি, এই ঘটনার জন্য বাসচালক দায়ী।

মন্ত্রী বলেন, আগামীকাল বিকালে মালিক-শ্রমিক ও সরকারের প্রতিনিধিরা বৈঠকে বসবো। এছাড়া তদন্তে প্রমাণিত হলে জাবালে নূর বাসের রুট পারমিট বাতিল করা হবে বলেও জানান তিনি।

গতকাল দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে ক্যান্টনমেন্ট থানাধীন বিমানবন্দর সড়কের বাম পাশে বাসের জন্য অপেক্ষা করার সময় জাবালে নূর পরিবহনের বাসের চাপায় রমিজ উদ্দিন ক্যান্টনমেন্ট কলেজের দুই শিক্ষার্থী নিহত হয়। এরপর সচিবালয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে হাসিমুখে তিনি বলেছিলেন, এ প্রোগ্রামের সঙ্গে কি এটা রিলেটেড? আমি শুধু এটুকু বলতে চাই, যে যতটুকু অপরাধ করবে, সে সেভাবেই শাস্তি পাবে। ভারতের একটি সড়ক দুর্ঘটনার উদাহারণ টেনে মন্ত্রী বলেন, ভারতের মহারাষ্ট্রে গাড়ি দুর্ঘটনায় ৩৩ জন মারা গেছেন। এখন সেখানে কী… আমরা যেভাবে এগুলোকে নিয়ে কথা বলি, এগুলো কি ওখানে বলে। এ বক্তব্য প্রচার হওয়ার পর সারাদেশে সমালোচনা শুরু হয়।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here