রাজধানীর বিমানবন্দর সড়কে জাবালে নূর পরিবহনের বাস চাপায় দুই শিক্ষার্থী নিহতের প্রতিবাদে সড়কে অবস্থান নিয়ে বিক্ষোভ শুরু করেছে শিক্ষার্থীরা। সকাল ১০টা থেকে বিমানবন্দর সড়ক অবরোধ করে শহীদ রমিজউদ্দিন ক্যান্টনমেন্ট স্কুল অ্যান্ড কলেজের শিক্ষার্থীরা এই বিক্ষোভ করছেন।

তাদের সঙ্গে রাজধানীর বিভিন্ন স্কুল-কলেজের অন্তত ৭ শতাধিক শিক্ষার্থী যোগ দিয়েছেন। গতকাল নিহত শিক্ষার্থীরা ওই স্কুলেই পড়তো।

গতকাল সকালেও ওই ঘটনার পর শিক্ষার্থীরা সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করেন। এ সময় তারা বেশ কয়েকটি গাড়িতে ভাংচুর ও আগুন দেন।

জানা গেছে, আজ সকাল আটটার দিকে শিক্ষার্থীরা শহীদ রমিজউদ্দিন ক্যান্টনমেন্ট স্কুল অ্যান্ড কলেজের সামনে অবস্থান নেন। এক পর্যায়ে তারা সকাল সাড়ে নয়টার দিকে মহাখালী থেকে বিমানবন্দরমুখী সড়ক অবরোধ করে। এরপর সকাল ১০টা থেকে তারা এই সড়কের উভয় দিকে অবস্থান নিয়ে যান চলাচল বন্ধ করে দেন। তারা যেসব গাড়ি আসছে, তা ঘুরিয়ে দিচ্ছেন। ফ্লাইওভার থেকেও গাড়ি ঘুরিয়ে দেয়া হচ্ছে।

এতে করে এই সড়ক ছাড়াও রাজধানীর অন্যান্য সড়কে ব্যাপক যানজট দেখা দিয়েছে। কর্মমুখী মানুষেরা চরম ভোগান্তিতে পড়েছেন।

এদিকে গতকালের ওই হতাহতের ঘটনায় মামলা হয়েছে। রোববার রাতে নিহত শিক্ষার্থী দিয়া খানম মিমের বাবা জাহাঙ্গীর ফকির বাদী হয়ে ক্যান্টনমেন্ট থানায় এ মামলা (মামলা নং ৩৩) করেন।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here