ছেলেবেলায় পরতেন ২৮ নম্বর জার্সি। কখনো ৯ নম্বর, কখনো ১৭ নম্বরও পরতে দেখা গেছে। একটা সময় গায়ে জড়ালেন সাত নম্বর।

সেই ‘সাত’ আজ রোনালদোর নামান্তর, ইতিহাসের অংশ। রিয়াল ছেড়ে জুভেন্টাসে গিয়েও সাত নম্বর জার্সি পরছেন। নম্বরটা আবার তাকে ছেড়ে দিয়েছেন হুয়ান গিয়ের্মো কুয়াদ্রাদো। রোনালদোর এই জার্সি নম্বরের পেছনে রয়েছে আরেকজন কিংবদন্তির পরামর্শ।

স্যার অ্যালেক্স ফার্গুসন। নামকরা এই কোচই রোনালদোকে সাত নম্বর জার্সি পরতে পরামর্শ দেন। ২০০৪ সালে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডে আসার পরই রোনালদো প্রথম সাত নম্বর জার্সি গায়ে চাপান।

ফার্গুসনের বিশ্বাস ছিল, এই নম্বরের জার্সি পরলে রোনালদো আরও ভালো ফুটবল খেলবেন। কারণ এই ক্লাবে খেলা আগের অধিকাংশ কিংবদন্তি সাত নম্বর পরেই আলো ছড়িয়েছেন।

ম্যানইউতে আসার পরও রোনালদো ২৮ নম্বর জার্সি পরতে চেয়েছিলেন। কিন্তু ফার্গুসন তাকে সেটি পরতে দেননি। এর আগে এই জার্সি পরতেন ডেভিড বেকহ্যাম, জর্জ বেস্ট এবং এরিক কাঁতোয়াঁর মতো ফুটবলাররা।

রোনালদো যখন রিয়াল চলে আসেন তখন ৯ নম্বর জার্সি পরেন। কারণ সাত নম্বর তখন আরেক কিংবদন্তি রাউলের দখলে। তিনি ক্লাব ছাড়ার পর রোনালদো ফের ‘সিআরসেভেন’ হয়ে যান।

জাতীয় দল পর্তুগালে কিছুদিন ১৭ নম্বর পরেছেন। কিংবদন্তি ফিগোর সঙ্গে খেলার দিনগুলোতে সাত পরতে পারেননি। ফিগো অবসর নেয়ার পর রোনালদো আবার সাতে ফিরে যান।

বিশ্বকাপের পর রিয়াল ছেড়ে জুভেন্টাসে যাওয়ার পর আবার জার্সি বিভ্রাটে পড়েন রোনালদো। কেননা ক্লাবটির সাত নম্বর ছিল কুয়াদ্রাদোর দখলে। তবে এবার আর রোনালদোকে অন্য কোনো নম্বর পরতে হয়নি। কুয়াদ্রাদো নিজেই রোনালদোকে সাত ছেড়ে দিয়ে ১৬ নম্বর নিয়েছেন।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here