কর্পোরেট এই যুগে যেন ছোট হয়ে আসছে সবকিছু। এর উপর বাড়তি পাওনা হিসাবে যোগ হয়েছে ফ্র‍্যাঞ্চাইজি ক্রিকেটের নামে টাকাপয়সার ঝনঝনানি। এইজন্যই হয়তো সবাই ঝুকছে স্বল্পদৈর্ঘ্যের ক্রিকেটের উপর। তারই ফলশ্রুতিতে ১০০ বলের ক্রিকেটের আয়োজনের চিন্তাভাবনা চলছে অনেক আগেই থেকেই। এবার দিনক্ষণ ঠিক হলো সেই টুর্নামেন্ট মাঠে গড়ানোরও।

টেস্ট, ওয়ানডের পর সবচেয়ে বেশি জনপ্রিয়তা পেয়েছে টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট। এবার সেই কুঁড়ি ওভারের ক্রিকেটের জনপ্রিয়তা ছাড়াতে আসছে ১০০ বলের ক্রিকেট। প্রতি দল পাবে ১০০টি করে বল। ক্রিকেটকে আরো দর্শকবান্ধব করতেই ইংল্যান্ড ক্রিকেট বোর্ড (ইসিবি) ১০০ বলের নতুন এই ফরম্যাট শুরু করার কথা ভাবে। যেই টুর্নামেন্ট মাঠে গড়ানোর কথা ছিলো ২০২০ সালে। তবে ১০০ বলের ক্রিকেটটা শুরু হতে যাচ্ছে আগামী মাসেই। পরীক্ষামূলকভাবে সেপ্টেম্বরে শুরু হচ্ছে এটি, খেলা হবে পুরুষ-নারী দুই বিভাগেই।

১০০ বলের ক্রিকেট আয়োজনের ঘোষণা আগেই দিয়ে রেখেছে ইসিবি। সেইসাথে দর্শকদের চমকে দেওয়ার জন্য নতুন ব্যবস্থা করছে ইংলিশ বোর্ডটি। তবে এমন উদ্ভট আকর্ষণ বাড়াতে গিয়ে পুরো ব্যাপারটিকেই জটিল করে ফেলার উপক্রম করেছে তারা। ১০০ বলের ক্রিকেট আনার কথা তো আগেই জানিয়েছিল ইসিবি। সেসময় বলা হয়েছিলো প্রথম ১৫ ওভারের প্রতি ওভার ৬ বলে হলেও ১৬ ও শেষ ওভারটি হবে ১০ বলের।

এরপর হঠাৎ করে ঘোষণা দেই ১০০ বলের ওভারগুলো ৬ নয়, হবে পাঁচ বলের করে। ইসিবি এমন নিত্যনতুন নিয়মের কারণও আছে বৈকি। কেননা খোদ এমসিসি যে এর আগেই বলে দিয়েছে, ১০০ বলের ক্রিকেটে ইসিবি নিজেদের মতো যে নিয়মই বানাক, তারা তাকে বাধ সাধবে না!

তারই ফলশ্রুতিতে আগামী ১৬-১৮ সেপ্টেম্বর নটিংহাম্পশায়ারের ট্রেন্ট ব্রিজে শুরু হবে পুরুষ ক্রিকেটের ১০০ বলের ক্রিকেট। আর লাফবোরোতে ১৪, ১৫ আর ২৭ সেপ্টেম্বর বসবে এই ফরম্যাটে নারীদের আসর। ১০০ বলের প্রস্তাবিত টুর্নামেন্টটিতে আটটি দল খেলবে ৩৬টি ম্যাচ। আইপিএলের মতোই থাকবে প্লে-অফ আর প্লেয়ার ড্রাফটস সিস্টেম।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here