ক্যারিবিয়ান প্রিমিয়ার লিগের আজকের ম্যাচে তালাওয়াশের বিপক্ষে সাত উইকেটের দুর্দান্ত জয় পেয়েছে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের সেইন্ট কিটস অ্যান্ড নেভিস প্যাট্রিয়টস। মূলত রিয়াদের ব্যাটিং তাণ্ডবেই জয় পায় ক্রিস গেইলের সেইন্ট কিটস। ব্যাট হাতে মাত্র ১১ বলে দুই চার দুই ছক্কায় ২৪ রানে অপরাজিত থাকেন তিনি।

সেন্ট কিটসের ওয়ার্নার পার্কে আগে ব্যাট করতে নেমে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৬ উইকেটে ২০৬ রান করেছিল জ্যামাইকা। জবাবে প্যাট্রিয়টস ৬.৩ ওভারে ১ উইকেটে ৬৫ রান তোলার পর বৃষ্টি নামে। ফলে প্যাট্রিয়টসের নতুন লক্ষ্য তাড়ায় ১১ ওভারে ১১৮, অর্থাৎ ৪.৩ ওভারে করতে হবে ৫৩।

মাহমুদউল্লাহর ১১ বলে ২৮ ও র‍্যাসি ভান দার দুসানের ২৪ বলে ৪৫ রানের দুটি অপরাজিত ইনিংসে প্যাট্রিয়টস ম্যাচ জিতেছে ৫ বল বাকি থাকতেই।

লক্ষ্য তাড়ায় ক্রিস গেইল ক্রিসমার সান্তোকির প্রথম ওভারেই চার বাউন্ডারিতে তোলেন ১৮ রান। তবে পরের ওভারের প্রথম বলেই গোল্ডেন ডাক মেরে ফেরেন আরেক ওপেনার এভিন লুইস।

বৃষ্টির পর নতুন লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে জোড়া ধাক্কা খায় প্যাট্রিয়টস। পরপর দুই বলে গেইল ও বেন কাটিংয়ের উইকেট হারায় তারা। সান্তোকির বলে আউট হওয়ার আগে ২৪ বলে ৬ চার ও ২ ছক্কায় ৪১ রান করেন গেইল। অ্যাডাম জাম্পার বলে বোল্ড কাটিং মারেন গোল্ডেন ডাক।

এরপরই উইকেটে আসেন মাহমুদউল্লাহ। তিন ওভারে প্যাট্রিয়টসের দরকার ছিল ৪৩ রান। মাহমুদউল্লাহ ও দুসান ওশানে থমাসের এক ওভারেই তোলেন ২৭ রান! দুসান প্রথম দুই বলে দুই ছক্কা হাঁকিয়ে তৃতীয় বলে নেন এক রান। শেষ তিন বলে মাহমুদউল্লাহ হাঁকান দুটি চার, একটি ছক্কা।

পরের ওভারে জাম্পাকেও আরেকটি ছক্কা হাঁকান মাহমুদউল্লাহ। শেষ ৬ বলে ২ রানের প্রয়োজনে রোভম্যান পাওয়েলের প্রথম বলেই ডাবল রান নিয়ে প্যাট্রিয়টসের জয়ও নিশ্চিত করেন তিনিই। মাহমুদউল্লাহ ১১ বলে ২টি করে চার ও ছক্কায় ২৮ রান করলেও ম্যাচসেরা হয়েছেন অবশ্য দুসান।

এর আগে জ্যামাইকা দুইশ ছাড়ানো সংগ্রহ পেয়েছিল পাওয়েলের ব্যাটে চড়ে। ৪০ বলে ১১ চার ও ৪ ছক্কায় ৮৪ রান করেন পাওয়েল। ৪০ রান করেন ওপেনার গ্লেন ফিলিপস। পরে বৃষ্টিতে লক্ষ্যটা ছোট হওয়ায় সুবিধাই হয়েছে প্যাট্রিয়টসের!

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here