বন্ধুর মাধ্যমে আলাপ, তারপর মেসেজে কথাবার্তা শুরু হয়। আলাপের আগে এভাবেই টানা ৬ মাস কথাবার্তা চলছিল।

পরে মেট গালায় একসঙ্গে গিয়েছিলাম, তখনও সেভাবে ব্যক্তিগতভাবে কিছু এগোয়নি। বাকিটা সবাই জানে। প্রিয়াঙ্কার সঙ্গে তার প্রেমের শুরুটা ঠিক এভাবেই হয়েছিল।

সম্প্রতি, `টুনাইট শো উইথ জিমি ফ্যালন`-এ হাজির হয়ে প্রিয়াঙ্কার সঙ্গে তাঁর প্রেমের গল্প শেয়ার করলেন ভারতের মার্কিন জামাই নিক জোনাস।

`টুনাইট শো উইথ জিমি ফ্যালন`- শোয়ে অতিথি হিসাবে আমন্ত্রিত ছিলেন মার্কিন পপ গায়ক নিক। কথাবার্তার শুরুতে প্রিয়াঙ্কার সঙ্গে বাগদানের জন্য তাকে শুভেচ্ছা জানান জিমি ফ্যালন।

তারপর নিককে প্রশ্ন করেন, প্রিয়াঙ্কার সঙ্গে তার আলাপ কীভাবে হয়? প্রেমটাই বা হয়েছিল কীভাবে? ফ্যালনের প্রশ্নে নিক কিছুটা লজ্জা পেয়ে গিয়েছিলেন ঠিকই তারপর শুরু করেন তাদের প্রেমের গল্প।

নিক জানান, এক বন্ধুর মাধ্যমে আমাদের আলাপ হয়েছিল, এরপর টেক্সটে কথাবার্তা হত। সামনা-সামনি হওয়ার আগে এভাবেই কথাবার্তা চলছিল। মেট গালাতে আমারা প্রথম সামনা-সামনি হয়েছিলাম।

তারপর বিষয়টা অন্যদিকে গড়ায়। এরপর যদিও বিভিন্ন অনুষ্ঠানে আমাদেরকে জিজ্ঞাসা করা হয় আমরা প্রেম করছি কিনা? উত্তরটা ছিল `না`। লোকজন ভাবত আমরা বোধহয় এটা প্রকাশ্যে আনতে লজ্জা পাচ্ছি। তারপরে কী হয় সবাই জানে, বর্তমানে আমাদের বাগদানও সম্পন্ন হয়েছে।

নিক আরও জানান,  এখন থেকে ঠিক ৫ মাস আগে থেকে আমাদের ঘনিষ্ঠতা বাড়তে থাকে। আমাদের মনে হয়েছিল এটাই ঠিক, তাই এগিয়েছি, আর আমরা ভীষণ খুশি।

ফ্যালন নিককে প্রশ্ন করেন, অন্যান্য সেলিব্রিটি দম্পতির মতো তাদের কোনো ডাক নাম রয়েছে কিনা? উত্তরে নিক সেটাও প্রকাশ্যে আনেন, জানান তাদেরকে `প্রিক` বলে ডাকা হয়।

প্রসঙ্গত, এদেশে অনেক সেলেব্রেটি দম্পতিদের বিশেষ একটি করে নাম রয়েছে। যেমন, রণবীর-দীপিকা (দীপবীর), বিরাট-অনুশকা (বিরুষ্কা), আলিয়া-রণবীর (রালিয়া), তেমনই প্রিয়াঙ্কা-নিক মিলিয়ে তাঁদের যে প্রিক বলে ডাকা হয় সেটাও এবার জানা গেল।

পাশাপাশি `টুনাইট শো উইথ জিমি ফ্যালন`- শোয়ে  এসে তাদের বাগদানের অনুষ্ঠান নিয়ে বেশকিছু কথা শেয়ার করছেন। দেখুন আর কী কী জানিয়েছেন।

যাই হোক প্রিয়াঙ্কা-নিকের প্রেম বাগদান পর্যন্ত এগিয়েছে, এখন ভক্তরা তাদের গাঁটছড়া বাঁধার অপেক্ষায় রয়েছেন।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here