সাতক্ষীরার কালিগঞ্জ উপজেলার কৃষ্ণনগন ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান কেএম মোশাররফ হোসেনকে গুলি করে হত্যা করা হয়েছে।

শনিবার (৮ সেপ্টেম্বর) রাত ১১টার দিকে কৃষ্ণনগর ইউনিয়নের বালিয়াডাঙ্গা বাজারে মুখোশধারী সন্ত্রাসীরা গুলি করে হত্যা করে এই চেয়ারম্যানকে। সে সময় তিনি স্থানীয় যুবলীগ কার্যালয়ে বসেছিলেন।

কালিগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (তদন্ত) রাজিব হোসেন প্রত্যক্ষদর্শীদের বরাত দিয়ে জানান, চেয়ারম্যান মোশাররফ হোসেন (৫২) স্থানীয় যুবলীগ অফিসে বসেছিলেন। এ সময় পাঁচ ছয় জন যুবক মোটর সাইকেলে এসেই বাজারে কয়েকটি ককটেল বোমা ফাটায়। এতে আতংকিত হয়ে দোকান পাট বন্ধ হবার সুযোগে সন্ত্রাসীরা যুবলীগ অফিসে ঢুকে চেয়ারম্যানের গালে পিস্তল ঠেকিয়ে গুলি করে। এরপরও তারা তাকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে দ্রুত পালিয়ে যায়। মোশাররফ হোসেনকে কালিগঞ্জ হাসপাতালে নেওয়ার পর কর্তব্যরত চিকিৎসক মহসিন আলী তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

কালিগঞ্জ সার্কেলের সহকারি পুলিশ সুপার (এএসপি) ইয়াসিন আলি জানান, চেয়ারম্যানের লাশ কালিগঞ্জ হাসপাতালে রয়েছে। ঘটনাস্থলে পুলিশ রয়েছে জানিয়ে তিনি বলেন, হত্যার আলামত হিসাবে বেশ কয়েকটি গুলি সেখানে পাওয়া গেছে।

চেয়ারম্যান মোশাররফ হোসেন জেলা জাতীয় পার্টির যুগ্ম সাংগঠনিক সম্পাদক ছিলেন। তিনি কৃষ্ণনগর ইউনিয়ন পরিষদের তিনবারের নির্বাচিত চেয়ারম্যান।

হত্যার কারণ এখনও নিশ্চিত করতে পারেনি পুলিশ। এ ঘটনায় এখনও কেউ গ্রেফতার হয়নি।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here