সেঞ্চুরি হাঁকিয়ে টেস্ট ক্যারিয়ারের শেষ ইনিংসটি স্মরণীয় করে রাখলেন ইংল্যান্ডের সর্বকালের সর্বোচ্চ রানসংগ্রাহক অ্যালিস্টার কুক। নাম লেখালেন বিরল এক রেকর্ডে। ক্যারিয়ারের প্রথম ও শেষ টেস্টে সেঞ্চুরি হাঁকানো পঞ্চম ব্যাটসম্যান কুক। সবশেষ ২০০০ সালের এই কীর্তি গড়েন ভারতের মোহাম্মদ আজহারউদ্দিন।

কুকের ব্যাটে ভর করে লন্ডনের কেনিংটন ওভালে পঞ্চম টেস্টে ভারতকে বড় টার্গেট দেয়ার পথে হাঁটে ইংলিশরা। গতকাল চতুর্থ দিনে চা বিরতির আগে ইংল্যান্ডের লিড দাঁড়ায় ৩২৯। হাতে ৮ উইকেট। ওপেনার কুক ১৩২ ও রানে ফেরা ইংলিশ অধিনায়ক জো রুট ১০৮ রানে অপরাজিত থাকেন। দলীয় ৬২ রানে দুই উইকেট হারানোর পর এই দুইজনের জুটিতে শক্ত অবস্থানে পৌঁছায় স্বাগতিকরা। সাদা পোশাকে রুটের এটি ১৪তম শতক। ১৬১তম টেস্ট আর ২৯১ ইনিংস খেলে ৩৩তম সেঞ্চুরি উদযাপন করেন ৩৩ বছর বয়সী কুক। সেঞ্চুরি করার পথে টেস্টে সর্বকালের সর্বোচ্চ রানসংগ্রাহক তালিকায় পঞ্চম স্থানে উঠে আসেন তিনি। পেছনে ফেলেন শ্রীলঙ্কান কিংবদন্তি কুমার সাঙ্গাকারাকে (১২৪০০ রান)। ২০১৭ সালের ডিসেম্বরে মেলবোর্নে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ২৪৪ রানের মহাকাব্যিক অপরাজিত

ইনিংসের পর এই প্রথম সেঞ্চুরি করলেন কুক। এর মাঝে ৯ টেস্টে মাত্র একটি ফিফটি আসে তার ব্যাট থেকে। বিদায়ী টেস্টের প্রথম ইনিংসে ৭১ রান করেন কুক। দল পায় ৩৩২ রানের পুঁজি। জবাবে রবীন্দ্র জাদেজার অপরাজিত ৮৬ রানের সুবাদে ২৯২ রানে অলআউট হয় ভারত। ৪০ রানের লিড পায় ৩-১ ব্যবধানে আগেই পাঁচ ম্যাচের টেস্ট সিরিজ নিশ্চিত করা ইংল্যান্ড। ভারতের বিপক্ষেই টেস্ট ম্যাচ দিয়েই আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অভিষেক হয় কুকের। নাগপুরে ২০০৬ সালের মার্চে অভিষেক টেস্টে সেঞ্চুরি হাঁকিয়ে নিজের আবির্ভাবের জানান দেন তিনি। ড্র হওয়া ম্যাচটির প্রথম ইনিংসে ৬০ ও দ্বিতীয় ইনিংসে ১০৪ রানে অপরাজিত থাকেন কুক।

প্রথম শেষ টেস্টে সেঞ্চুরি

খেলোয়াড় প্রথম টেস্ট শেষ টেস্ট

অ্যালিস্টার কুক (ইংল্যান্ড) মার্চ ২০০৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮

আজহারউদ্দিন (ভারত) ডিসেম্বর ১৯৮৪ মার্চ ২০০০

গ্রেগ চ্যাপেল (অস্ট্রেলিয়া) ডিসেম্বর ১৯৭০ জানুয়ারি ১৯৮৪

উইলিয়াম পন্সফোর্ড (অস্ট্রেলিয়া) ডিসেম্বর ১৯২৪ আগস্ট ১৯৩৪

রেজিনাল্ড ডাফ (অস্ট্রেলিয়া) জানুয়ারি ১৯০২ আগস্ট ১৯০৫

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here