অন্তত তিন লাখ সেনা নিয়ে বিশাল সামরিক মহড়া শুরু করেছে রাশিয়া। এতে হাজার হাজার ট্যাংক, বিমান ও যুদ্ধজাহাজ অংশ নিচ্ছে।

দূর প্রাচ্যের রুশ সীমান্তে অনুষ্ঠিত এ মহড়ায় রাশিয়ার সেনাদের সঙ্গে অংশ নিচ্ছে চীন ও মঙ্গোলিয়ার কয়েক হাজার সেনা। গতকাল (মঙ্গলবার) থেকে শুরু হওয়া মহড়া চলবে ১৭ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত। রাশিয়া বলেছে, স্নায়ুযুদ্ধ পরবর্তী এটাই সবচেয়ে বড় মহড়া।

রুশ প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে প্রকাশিত ছবিতে ট্যাংক, সাঁজোয়াযান ও যুদ্ধজাহাজের তৎপরতা দেখা গেছে। পাশাপাশি কম্ব্যাট হেলিকপ্টার ও যুদ্ধবিমানকে প্রাথমিক প্রস্তুতির পর্যায়ে দেখা গেছে।

চলতি মহড়ায় বেশকিছু নতুন যুদ্ধ সরঞ্জাম প্রথমবারের মতো প্রদর্শন করা হবে। এছাড়া, এয়ারবোর্ন ট্রুপসও মোতায়েন করা হচ্ছে। ক্রেমলিনের মুখপাত্র দিমিত্রি পেসকভ বলেছেন, চলমান বিশ্ব পরিস্থিতিতে এ ধরনের সামরিক মহড়া চালানো জরুরি হয়ে পড়েছিল।

চীনা প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং গতকাল রাশিয়া সফরে গেছেন এবং মহড়ায় চীনের সাতে তিন হাজার সেনার অংশগ্রহণের প্রশংসা করে রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন বলেছেন, চীনের সঙ্গে মস্কোর দিন দিন সম্পর্ক ঘনিষ্ঠ হচ্ছে। রুশ সামিরক বাহিনীর সর্বাধিনায়ক হিসেবে তিনি সপ্তাহের শেষ দিকে মহড়া পরিদর্শন করবেন।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here