গত এক যুগ ধরে ফুটবল বিশ্বে রাজত্ব করে যাচ্ছেন লিওনেল মেসি ও ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। কিন্তু রাশিয়া বিশ্বকাপ পরবর্তী সময়ে তাদের পেছনে ফেলে বিস্ময়ের জন্ম দিয়েছেন বিশ্বকাপ জয়ী ফ্রান্সের ১৯ বছর বয়সী পিএসজি তারকা কিলিয়ান এমবাপ্পে।

ফ্রান্সের ঘরে দ্বিতীয়বারের মতো বিশ্বকাপ যাওয়ার পেছনে এই তরুণের অনেক অবদান রয়েছে। তিনি পান টুর্নামেন্টের সেরা উদীয়মান খেলোয়াড়ের ‍পুরস্কার। রাশিয়া বিশ্বকাপ পরবর্তী সময়ে ফুটবল বিশ্লেষকরা মনে করছেন মেসি-রোনালদো অবসরে গেলে ফুটবল বিশ্বের রাজা হিসেবে আবির্ভূত হবেন এমবাপ্পে।

লিওনেল মেসির বর্তমান বয়স ৩১ বছর। আর ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোর বয়স ৩৩ বছর। ২০২২ কাতার বিশ্বকাপের সময় মেসির বয়স হবে ৩৫। আর রোনালদোর বয়স হবে ৩৭। মেসি-রোনালদো সে বিশ্বকাপে অংশগ্রহণ করবেন কিনা সেটা সময়ই বলে দিবে। তবে এ দু’তারকার পর যে ফুটবল বিশ্বের রাজত্ব এমবাপ্পের হাতে চলে যাবে তা এক প্রকার নিশ্চিত।

এদিকে মেসি-রোনালদোরা বিভিন্ন পুরস্কার দিয়ে শোকেস সাজালেও তাদেরকে অন্যদিক দিয়ে ছাড়িয়ে গেছেন বিশ্বকাপ জয়ী ফ্রান্সের ১৯ বছর বয়সের এমবাপ্পে।  এমবাপ্পে এ বয়সে যে সকল কীর্তি করেছেন তাতে ছাড়িয়ে গেছেন এলএমটেন ও সিআরসেভেনকে।

ক্লাবের হয়ে গোল

কিলিয়ান এমবাপ্পে: ৫২ গোল

লিওনেল মেসি: ২৫ গোল

ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো: ১৭ গোল

চ্যাম্পিয়নস লিগে গোল

কিলিয়ান এমবাপ্পে: ১০ গোল

লিওনেল মেসি: ২ গোল

ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো: ০ গোল

জাতীয় দলের হয়ে গোল

কিলিয়ান এমবাপ্পে: ৯ গোল

লিওনেল মেসি: ৪ গোল

ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো: ৭ গোল

এতো গেল গোলের হিসাব। এ তারকা কিন্তু ইতোমধ্যেই বিশ্বকাপের সোনালী ট্রফিতে চুমু এঁকে দিয়েছেন। যা কিনা করতে পারেননি লিওনেল মেসি ও ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here