নির্বাচন সামনে রেখে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন (ইভিএম) কেনাসহ ১২ হাজার ৫৪৪ কোটি টাকার ১৪টি প্রকল্প অনুমোদন দিয়েছে জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটি (একনেক)। ইভিএম প্রকল্পের ব্যয় ধরা হয়েছে প্রায় ৪ হাজার কোটি টাকা।

মঙ্গলবার রাজধানীর শেরে বাংলানগরে জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের (এনইসি) সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত একনেক সভায় এ প্রকল্পের অনুমোদন দেওয়া হয়। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে একনেক সভা সকালে শুরু হয়।

একনেক সভা শেষে প্রকল্পগুলো নিয়ে সাংবাদিকদের ব্রিফ করেন পরিকল্পনামন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল।

সভাশেষে পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, দেড় লাখ ইভিএম কেনা প্রকল্প একনেকে অনুমোদন দেয়া হয়েছে। এ প্রকল্পে প্রস্তাবিত ব্যয় ধরা হয়েছে ৩ হাজার ৮২৫ কোটি ৩৪ লাখ টাকা। শুধু দেড় লাখ ইভিএম, সিস্টেম এবং সংশ্লিষ্ট যন্ত্রপাতির কেনার জন্য ৩ হাজার ৫১৫ কোটি ৬১ লাখ টাকা ব্যয় ধরা হয়েছে। ফলে প্রতি ইউনিট ইভিএমের দাম পড়ছে প্রায় দুই লাখ টাকা।

প্রকল্পের বাস্তবায়ন মেয়াদ চলতি সময় থেকে জুন ২০২৩ সাল পর্যন্ত।

মন্ত্রী আরো বলেন, আজকের সভায় ১৪টি (নতুন ও সংশোধিত) প্রকল্প অনুমোদন দেয়া হয়েছে। এতে মোট ব্যয় হবে ১২ হাজার ৫৪৪ কোটি ৯৪ লাখ টাকা। এর মধ্যে সরকারি অর্থায়ন করা হবে ৮ হাজার ৮৪২ কোটি ৩৩ লাখ টাকা, সংস্থার নিজস্ব তহবিল থেকে ব্যয় করা হবে ২৫৭ কোটি ১ লাখ টাকা এবং প্রকল্প সাহায্য ৩ হাজার ৪৪৫ কোটি ৬০ লাখ টাকা।

এদিকে, গত অর্থবছরের চূড়ান্ত হিসাবে জিডিপি’র প্রবৃদ্ধি হয়েছে রেকর্ড ৭ দশমিক আট ছয় শতাংশ, যা প্রাথমিক হিসাবে ছিল ৭.৬৫ শতাংশ। ২০১৫-১৬ অর্থবছরে জিডিপি প্রবৃদ্ধি ৭ শতাংশের ঘর অতিক্রম করে। এর পর গত দুই অর্থবছর ধরেই প্রবৃদ্ধির হার ৭ শতাংশের ওপরে রয়েছে।

বৈঠকে আরো উপস্থিত ছিলেন অর্থ ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী এম এ মান্নান, সাধারণ অর্থনীতি বিভাগের সদস্য (সিনিয়র সচিব) ড. শামসুল আলম, পরিকল্পনা সচিব জিয়াউল ইসলাম প্রমুখ।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here