উত্তর কোরিয়ার পরমাণু নিরস্ত্রীকরণের বিষয়ে আলোচনা করতে দেশটির রাজধানী পিয়ংইয়ংয়ে কিম জং উনের সঙ্গে মিলিত হচ্ছেন দক্ষিণ কেরিয়ার প্রেসিডেন্ট মুন জায়ে-ইন। মঙ্গলবার পিয়ংইয়ং পৌঁছান দক্ষিণ কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট মুন জায়ে-ইন।

তিনদিনের এই সফরে দক্ষিণ কোরিয়ার প্রেসিডেন্টের সঙ্গে তার স্ত্রী কিম জুং-সুকও রয়েছেন। দক্ষিণ কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট ও তার স্ত্রীকে বিমানবন্দরে উষ্ণ অভ্যর্থনা জানান উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং উন ও তার স্ত্রী রি সোল-জু।

গত এক দশকের মধ্যে এই প্রথম দক্ষিণ কোরিয়ার কোনও নেতা উত্তর কোরিয়া সফরে এলেন। গেলো এপ্রিলে উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং উনের সঙ্গে দক্ষিণ কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট মুন জায়ে-ইনের প্রথম ঐতিহাসিক বৈঠকের পর চলতি বছর এটি উভয় নেতার তৃতীয় সাক্ষাৎ।

খবরে বলা হয়েছে, উভয় নেতা ‘পরমাণু নিরস্ত্রীকরণের ব্যবহারিক পদক্ষেপ’ নিয়ে আলোচনা করবেন। তবে এ ব্যাপারে বিস্তারিত জানা যায়নি।

বিশ্লেষকরা বলছেন, দক্ষিণ কোরিয়ার দুটি লক্ষ্য রয়েছে। একটি হচ্ছে আন্তঃকোরীয় সহযোগিতা ও সৌহার্দ্য জোরদার করা এবং পরমাণু নিরস্ত্রীকরণ ইস্যুতে পিয়ংইয়ং-ওয়াশিংটনের মধ্যে মধ্যস্থতাকারী হিসেবে ভূমিকা পালন।

বিবিসির সিউল সংবাদদাতা লরা বাইকার বলেন, এই বৈঠকে পরমাণু নিরস্ত্রীকরণে বাস্তবসম্মত পদক্ষেপ নিতে উত্তর কোরিয়াকে রাজি করানোর ব্যাপারে মুনকে অগ্রগতি অর্জন করতে হবে।

এদিকে কোরিয়া যুদ্ধের সমাপ্তির বিষয়েও উভয় নেতা আলোচনা করতে পারেন। ১৯৫৩ সালে অস্ত্রবিরতির মধ্য দিয়ে কোরিয়া যুদ্ধের সমাপ্তি ঘটে কিন্তু উভয় দেশের মধ্যে কোনও আনুষ্ঠানিক ‍চুক্তি সই হয়নি।

উল্লেখ্য, গেল ১২ জুন সিঙ্গাপুরে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে এক ঐতিহাসিক বৈঠকে মিলিত হন উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং উন। ওই বৈঠকে কোরিয়ান উপদ্বীপে পরমাণু নিরস্ত্রীকরণ, কোরিয়া যুদ্ধের সমাপ্তিসহ বিভিন্ন বিষয়ে আলোচনা করেন উভয় নেতা।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here