আগামী সপ্তাহে নিউ ইয়র্কে জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের বার্ষিক সম্মেলনের আগে ইরানের সঙ্গে একটি চুক্তি সই করার আগ্রহ প্রকাশ করেছে আমেরিকা। মার্কিন সরকারের কথিত ‘ইরান অ্যাকশন’ গ্রুপের প্রধান ব্রায়ান হুক বুধবার হাডসন ইন্সটিটিউটে এক বক্তব্যে এ আগ্রহ প্রকাশ করেন।

তিনি ছয় জাতিগোষ্ঠীর সঙ্গে ইরানের স্বাক্ষরিত পরমাণু সমঝোতাকে ‘ইরান সরকারের সঙ্গে সাবেক ওবামা প্রশাসনের ব্যক্তিগত সমঝোতা’ বলে দাবি করেন। হুক বলেন, এর পরিবর্তে আমরা ইরানের সঙ্গে একটি চুক্তি চাই।

ব্রায়ান হুক দাবি করেন, সাবেক ডেমোক্র্যাট প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার শাসনামলে স্বাক্ষরিত পরমাণু সমঝোতা রিপাবলিকানদের সমর্থন আদায় করতে ব্যর্থ হয়েছিল।

ইরান অ্যাকশন গ্রুপের প্রধান বলেন, ওবামা প্রশাসন পরমাণু সমঝোতা নিয়ে মার্কিন সিনেটে ভোটাভুটির পরিবর্তে এটিকে জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের ভোটে দেয়। আমেরিকায় কোনো চুক্তিকে টেকসই করতে হলে সেটাকে সিনেটে পাস করাতে হবে বলে তিনি অভিমত প্রকাশ করেন।

আমেরিকার সঙ্গে যেকোনো ধরনের সংলাপের সম্ভাবনা নাকচ করে দিয়েছেন সর্বোচ্চ নেতা আয়াতুল্লাহিল উজমা খামেনেয়ী

২০১৫ সালে আমেরিকা, ব্রিটেন, ফ্রান্স, জার্মানি, চীন, রাশিয়া ও ইউরোপীয় ইউনিয়নের সঙ্গে পরমাণু সমঝোতা সই করে ইরান। জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদে সমঝোতাটি অনুমোদিত হওয়ায় তা আন্তর্জাতিক আইনে পরিণত হয়। কিন্তু গত মে মাসে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ওই সমঝোতা থেকে বেরিয়ে গিয়ে ইরানের ওপর কঠোর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছেন।

ইরানের সর্বোচ্চ নেতা আয়াতুল্লাহিল উজমা খামেনেয়ী এরইমধ্যে সুস্পষ্টভাবে ঘোষণা করেছেন, আমেরিকার ধোঁকাবাজি ও দাম্ভিক চরিত্রের কারণে ওয়াশিংটনের সঙ্গে আর কোনো সংলাপে বসবে না তেহরান।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here