ক্যাটরিনা কাইফের বলিউড যাত্রা ছিল ফ্লপ সিনেমা দিয়ে। কাইজার গুস্তাদ পরিচালিত বহুল সমালোচিত ‘বুম’ সিনেমার মাধ্যমে বলিউডে যাত্রা শুরু করেন তিনি। প্রথম সিনেমাতে ধাক্কা খেয়ে চলচ্চিত্র থেকে মুখ ফিরিয়ে নেন ক্যাট।

এরপর ২০০৪ সালে লন্ডন থেকে মুম্বাই আসেন। পরিচয় হয় সালমান খানের সঙ্গে। যে পরিচয় একসময় প্রেমের সম্পর্কে রূপ নেয়। সালমান খানের সহযোগিতায় আবারও চলচ্চিত্রে অভিনয় করার সিদ্ধান্ত নেন অভিনেত্রী। ‘সরকার’ সিনেমা দিয়ে সবাইকে তাক লাগিয়ে দেন। পেয়ে যান তারকাখ্যাতি। সেই থেকে আর পেছন ফিরে তাকাতে হয়নি বলিউডের অন্যতম আবেদনময়ী এই অভিনেত্রীকে।

ওই সময় সালমান-ক্যাটরিনার প্রেম ও রোমান্স সর্ব মহলে আলোচিত। তারপর সেই সম্পর্কের বিচ্ছেদ। রনবীর কাপুরের সঙ্গে নয়া প্রেমে মজেন নায়িকা। এ সম্পর্কও টেকেনি বেশি দিন। বেশ কিছুদিন একা থেকে আবারও সালমান খানের কাছেই ফিরলেন ক্যাটরিনা। তবে প্রেমের সম্পর্ক নয়, অন্যরকম এক বন্ধুত্ব। যদিও এটি নিয়েও চলছে আলোচনা। তারপর একটি ম্যাগাজিনের ফটোশুটে ঘনিষ্ঠ অবস্থায় ধরা দেন দুজন। একই সঙ্গে দুজন এক সঙ্গে পর্দায় হাজির হন। ‘এক থা টাইগার’ এর মাধ্যমে বক্স অফিস কাঁপিয়ে দেন ক্যাট। এরপর ‘টাইগার জিন্দা হ্যায়’ সিনেমাতেও দেখিয়েছেন নিজেদের কারিশমা। এবার শোনা যাচ্ছে ‘দাবাং-৩’তেও থাকছেন ক্যাটরিনা। অন্যদিকে প্রিয়াঙ্কার ছেড়ে দেয়া ‘ভারত’ সিনেমাতেও নাকি সালমান কাস্ট করেছেন ক্যাটরিনাকে। সব মিলিয়ে এটা বোঝা যাচ্ছে যে- সালমান-ক্যারিনা দুজন দুজনকে ছাড়া একপ্রকার অচল।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here