কেপ টাউন টেস্টে বল টেম্পারিংয়ের দায়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে এক বছর নিষিদ্ধ হয়েছেন। তবে থেমে নেই স্টিভেন স্মিথ ও ডেভিড ওয়ার্নারের পথ চলা। শনিবারই  অস্ট্রেলিয়ার ঘরোয়া লিগের আসর ‘গ্রেড ক্রিকেট’-এ প্রথমবারের মাঠে নামেন তারা। ব্যাট হাতে আগের মতোই ছড়িয়েছেন দ্যুতি। তাতে সবাইকে এরইমধ্যে একটা বার্তা দিতে পেরেছেন অস্ট্রেলিয়ার সাবেক অধিনায়ক, সহ-অধিনায়ক- আমরা ফুরিয়ে যায়নি।

ওয়ানডে ফরম্যাটের ম্যাচে সাদারল্যান্ডের হয়ে শনিবার ৯২ বলে ৮৫ রান করেন স্মিথ। তার ইনিংসটিতে ছিল সমান ছয়টি করে চার-ছয়। অন্যদিকে র‌্যান্ডউইক-পিটারস্যামের হয়ে সেঞ্চুরি করেন ডেভিড ওয়ার্নার।

মোসম্যানের বিপক্ষে শনিবার সাদারল্যান্ডের হয়ে নিউ সাউথ ওয়েলস প্রিমিয়ার লিগে খেলেন স্মিথ। তাকে সমর্থন জানাতে গ্লেন ম্যাকগ্রা স্টেডিয়ামে আসেন ১০০০ দর্শক।

অন্যদিকে সেন্ট জর্জ স্টেডিয়ামে র‌্যান্ডউইক-পিটারস্যামের হয়ে ১৫৫ বলে অপরাজিত ১৫২ রানের মহাকাব্যিক ইনিংস খেলেন ওয়ার্নার। মূলত এ ডানহাতির ব্যাটেই শেষ বলে জয়ের জন্য ২৭৮ রানের লক্ষ্যে পৌঁছে যায় দলটি।

এরআগে গত মার্চে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে বল টেম্পারিংয়ের কারণে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে নিষিদ্ধ হয়েছিলেন স্মিথ-ওয়ার্নার। পরে তারা ঘরোয়া ক্রিকেটে খেলার আহ্বান জানান সিএর কাছে। শেষ পর্যন্ত গত মে তে তাদেরকে অস্ট্রেলিয়ার প্রথম শ্রেনীর ‘গ্রেড ক্রিকেট’ খেলার অনুমতি দেয় সংস্থাটি।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here