বেইজিংয়ে নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত টেরি ব্র্যানস্ট্যাড’কে চীনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে তলব করা হয়েছে। রাশিয়ার কাছে থেকে যুদ্ধবিমান ও ক্ষেপণাস্ত্র ক্রয়ের কারণে মার্কিন সরকার চীনের একটি সামরিক সংস্থার বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করার পর মার্কিন রাষ্ট্রদূতকে তলব করা হলো।

চীনের ভাইস পররাষ্ট্রমন্ত্রী ঝেং জেগুয়াং শনিবার ব্র্যানস্ট্যাডকে তলব করে চীনা সামরিক বাহিনীর ওপর মার্কিন নিষেধাজ্ঞার বিরুদ্ধে ‘কঠোর প্রতিবাদ’ জানান। চীনা সরকারি দৈনিক পিপল’স ডেইলি এক সংক্ষিপ্ত প্রতিবেদনে একথা জানিয়েছে।

মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় গত বৃহস্পতিবার চীনা সামরিক বাহিনীর জন্য অস্ত্র ক্রয়ের দায়িত্বপ্রাপ্ত সংস্থা ইকুইপমেন্ট ডেভেলপমেন্ট ডিপার্টমেন্ট- ইইডি’র ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে। মন্ত্রণালয়ের ঘোষণায় বলা হয়, রাশিয়ার সঙ্গে ‘গুরুত্বপূর্ণ লেনদেন’ করায় এ নিষেধাজ্ঞা জারি করা হলো।

এ নিষেধাজ্ঞার ফলে ইইডি এবং এর পরিচালক লি শ্যাংফু আমেরিকায় কোনো পণ্য রপ্তানি করতে  বা আমেরিকার অর্থনৈতিক ব্যবস্থা ব্যবহার করতে পারবেন না।

মার্কিন পররাষ্ট্র দপ্তর বলেছে, রাশিয়ার কাছ থেকে ১০টি এসইউ-৩৫ জঙ্গিবিমান এবং অত্যাধুনিক আকাশ প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা এস-৪০০ কেনার কারণে এ নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছে।

চীনা প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র ওউ কিয়ান এ নিষেধাজ্ঞার তীব্র নিন্দা জানিয়ে বলেছেন, দু’টি সার্বভৌম দেশের মধ্যে কোনো লেনদেনে ‘হস্তক্ষেপ করার কোনো অধিকার’ আমেরিকার নেই।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here