আগামী শনিবার বিএনপির জনসভার দলের ভবিষ্যত কর্মপন্থা ও কর্মসুচির কথা জানানো হবে বলে জানিয়েছেন দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

বুধবার নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রিয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন। এর আগে এক যৌথ সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে অংশ নেন গাজীপুর, টাঈাইল, মুন্সিগঞ্জ, ঢাকা জেলা এবং ঢাকা মহানগর বিএনপিসহ বিএনপির অঙ্গদলের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকরা।

মির্জা ফখরুল বলেন, ২৯শে সেপ্টেম্বরের জনসভায় আমরা দলের নীতি নির্ধারনী বক্তব্য দেবো। ভবিষ্যত কর্মপন্থা ও কর্মসুচি তুলে ধরবো। তিনি বলেন, আমরা জনসভার জন্য ২৭ তারিখ অনুমতি  চেয়েছিলাম।

কিন্ত পুলিশের পক্ষ থেকে জানানো হয়, ২৯ তারিখ (শনিবার) ছুটির দিন সমাবেশ করলে ভালো হয়। সেভাবে জনসভার অনুমতির জন্য কতৃপক্ষকে চিঠি দিয়েছি। কিন্ত এখন ভিন্ন কথা বলা হচ্ছে। ওইদিন নাকি আওয়ামী লীগের কর্মসুচি আছে। তিনি আরও বলেন, আওয়ামী লীগের মতবিনিময় মহানগর নাট্য মঞ্চ আর আমাদের জনসভা হচ্ছে  সোহরাওয়ার্দী হবে। এখানে বিরোধের সম্পর্কটা কোথায়?

অন্য কোনো দিনের জন্য অনুমতি চাওয়া হবে কি না এমন প্রসঙ্গে জানতে চাইলে মির্জা ফখরুল বলেন, আমরা তো ২৯ তারিখ অনুমতি চেয়েছি। জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়ার নেতাদের বিএনপির জনসভায় আমন্ত্রণ জানানো হবে কিনা এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, এখন সব বলে দিলে হবে না তো।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন, বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান শামছুজ্জামান দুদু, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আবদুল হাই, সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব অ্যাডভোকেট রুহুল কবির রিজভী, যুগ্ম মহাসচিব ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন, মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, খায়রুল কবির খোকন, সাংগঠনিক সম্পাদক ফজলুল হক মিলন প্রমুখ।

 

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here