গতবার এশিয়া কাপের ফাইনালে ভারতের বিপক্ষে হেরেছিল বাংলাদেশ। এবার ফাইনালে ভারতকে হারিয়ে সেই প্রতিশোধ নেওয়ার সুযোগ ছিল টাইগারদের। এই স্কোয়াডে ছিলেন না ভারতের রানমেশিন বিরাট কোহলি। তবে, বাংলাদেশও ইনজুরির কারণে পায়নি তামিম-সাকিবের মতো সেরা খেলোয়াড়দের। ফাইনাল ম্যাচটি দলের বাইরে থেকেই উপভোগ করেছেন কোহলি, তামিম, সাকিবরা।

গত এশিয়া কাপের ফাইনালে বাংলাদেশকে সহজেই হারিয়েছিল ভারত। তবে, এবার ছেড়ে কথা বলেনি লাল-সবুজরা, শেষ বলে ম্যাচ জিতেছে ভারত। তার আগে ২০১২ সালে ভারতকে হারিয়েছিল বাংলাদেশ। সেবার পাকিস্তানের বিপক্ষে ফাইনালে ২ রানে হেরেছিল টাইগাররা। এবারের কষ্টটা আরও বেশি। শেষ ওভারের শেষ বলে কেদার যাদব মিলিয়ে দিয়েছেন সব হিসেব। তার আগে ভারতকে কাঁপিয়ে দিয়েছিল মাশরাফি-রুবেল-মোস্তাফিজরা।

এর আগে নিদাহাস ট্রফির ফাইনালেও ভারতের কাছে হারতে হয়েছিল শেষ বলে। তারও আগে চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির সেমি ফাইনালে ভারতের বিপক্ষে হেরে ফাইনালে উঠা হয়নি টাইগারদের। আর গত ওয়ানডে বিশ্বকাপের কোয়ার্টার ফাইনালে টিম ইন্ডিয়ার কাছেই হারতে হয়েছিল বাংলাদেশকে। আর গত টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে এই ভারতের কাছেই ১ রানে হারতে হয়েছিল টিম বাংলাদেশকে।

বাংলাদেশকে তাই ভালো করেই জানা ভারতের নিয়মিত অধিনায়ক বিরাট কোহলির। সবশেষ এশিয়া কাপের ফাইনালে বাংলাদেশকে হারানোর পর টাইগারদের অভিনন্দন জানাতে ভুলেননি সময়ের সেরা ব্যাটসম্যান কোহলি। নিজ দলের এমন সাফল্যে সতীর্থদের জন্য তিনি টুইট করে লিখেছেন, গত রাতে দারুণ করেছো কঠিন একটি ম্যাচ জিতে। আমাদের জন্য সপ্তম এশিয়া কাপ জয়। শুভেচ্ছা জানাই বাংলাদেশকে, তাদের কঠিন লড়াইয়ের জন্য।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here