লিটন দাশকে বিতর্কিত আউট ঘোষণা করা থার্ড আম্পায়ার রড টাকারের ফেসবুক অ্যাকাউন্ট বাতিল করে দেয়া হয়েছে। ডিটি টাইগারর্স সোশ্যাল মিডিয়া সিকিউরিটি টিমের ফেসবুক পেজে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

এশিয়া কাপের ফাইনালে লিটন দাসকে ভারতীয় উইকেটকিপার মহেন্দ্র সিং ধোনির স্ট্যাম্পিং আউট দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়ে তুমুল বিতর্ক শুরু হয়। খোদ ধারাভাষ্যকাররাই ‘বেনিফিট অব ডাউট’ ব্যাটসম্যানের পক্ষে বললেও থার্ড আম্পায়ার অস্ট্রেলিয়ার রড টাকার আউট দিয়ে দিয়েছেন লিটনকে। তার ইনিংসের পরিসমাপ্তি ঘটেছে ১২১ রানে।

৪১তম ওভারের শেষ বলে (কুলদীপ যাদবের) এগিয়ে মারতে চেয়েছিলেন লিটন। রিপ্লাইয়ে দেখা গেছে, প্রথম পর্যায়ে পা ঠিক না থাকলেও ধোনি বল স্ট্যাম্পিং করার আগে নিরাপদে পা ছিল লিটন দাসের।

লিটনকে কি ‘ভারত-আইনে’ আউট দিলেন মি. টাকের?

কিন্তু সবাইকে অবাক করে দিয়ে থার্ড আম্পায়ার লিটন দাসকে আউট ঘোষণা করেন। এমন বিতর্কিত সিদ্ধান্ত নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় সমালোচনার ঝড় বইছে।

এই আম্পায়ার ২০১৬ সালে ভারতে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ চলাকালেই তাসকিন আহমেদের বোলিং অ্যাকশন অবৈধ বলে রিপোর্ট করেছিলেন। ওই রিপোর্টের পরও তুমুল সমালোচনার মুখে পড়েছিলেন তিনি।

এর আগে বাংলাদেশ-ভারতের মধ্যে ম্যাচে বাজে আম্পায়ারিং আলোচনায় এসেছিল। বিশেষ করে ২০১৫ বিশ্বকাপে ভারত-বাংলাদেশ কোয়ার্টার ফাইনালে একাধিক সিদ্ধান্ত নিয়ে তুমুল বিতর্ক হয়েছিল।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here