এশিয়া কাপ শিরোপা হাতের নাগালে ছিল তবুও নিজেদের করে নেয়া সম্ভব হলোনা। দুবাইতে  এশিয়া কাপের ফাইনাল জিতে নিয়েছে ভারত। ইতিহাসে সেটিই লেখা থাকবে। কিন্তু এটাও বর্ণিত থাকবে শেষ বল পর্যন্ত হাল না মেনে লড়াই চালিয়ে গিয়েছিল বাংলাদেশ দল।

যেখানে ৫০ ওভারে সাড়ে ৩০০ রানও কখনও কখনও জয়ের জন্য নিশ্চিত মনে হয় না, সেখানে টাইগারদের স্কোর বোর্ডে মাত্র ২২২ রানের পুঁজি নিয়ে যেভাবে লড়াই চালিয়েছে তাদে মন ছুঁয়ে গিয়েছে পুরো ক্রিকেট বিশ্বের।

দেশে ফিরলো টাইগাররা

এশিয়া কাপের মিশন শেষ শনিবার রাতে দেশে ফিরেছেন টাইগাররা। বাংলাদেশ সময় রাত সোয়া ১১টার দিকে  শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে ফ্লাইটটি অবতরণ করে।

টুর্নামেন্টের প্রথম ম্যাচেই ছিটকে যায় তামিম ইকবাল। ফাইনালে ওঠার লড়াইয়ের আগে ইনজুরির কারণে বাদ পড়েন সাকিব আল হাসানও। দুই গুরুত্বপূর্ণ সদস্য ছাড়াই লড়াই করতে হয় মাশরাফিরা বিন মুর্তজার দলকে।

শ্রীলঙ্কা ও পাকিস্তানের বিপক্ষে মুশফিক-মিঠুনের জুটি এবং ফাইনালে লিটন-মিরাজের দুর্দান্ত সূচনায় মুগ্ধ রোডস, ‘ম্যাচগুলোর দিকে ফিরে তাকান। আমরা বিপদে পড়েছিলাম, সেখান থেকে দলকে টেনে তুলেছে মুশফিক-মিঠুন জুটি। আর গতকাল লিটন আর মিরাজের শুরুটা ছিল দারুণ।’

ফাইনালে আবারও ভারতের কাছে হার। এটাকে মানসিক বাধা হিসেবে মনে করছেন? রোডসের উত্তর, ‘না, কখনও এমনটা ভাবা উচিত নয়। আমি নিশ্চিত, পুরো দেশবাসী এই পারফরম্যান্সকে উন্নতি হিসেবে দেখবে। আমরা হাড্ডাহাড্ডি লড়াই করেছি। বড় দলের বিপক্ষে এটা সহজ নয়। আমাদের চেয়ে তো তারা র‌্যাংকিংয়ে বেশ এগিয়ে।’

কোচের বিশ্বাস, এভাবে এগোতে পারলে পাঁচটি ফাইনালে হারের হতাশা পেছনে ফেলে শিরোপা জিততে পারবে বাংলাদেশ, ‘আমাদের আরও উন্নতি করতে হবে, খেলোয়াড়দের আরও অভিজ্ঞ হতে হবে। তাহলেই আমরা ফাইনালে জেতা শুরু করবো। আমাদের আরও ফাইনালে খেলতে হবে। আরও প্রচেষ্টা ও অভিজ্ঞতার সমন্বয়ে সাফল্য আসবে। আশা করি, বাংলাদেশের মানুষ এটা বুঝবে।’

শ্রীলঙ্কার সঙ্গে উদ্বোধনী ম্যাচে ইনজুরিতে পড়ে তামিম ইকবালের টুর্নামেন্ট শেষ। সুপার ফোরে পাকিস্তানের বিপক্ষে অলিখিত সেমিফাইনালের আগে সাকিব আল হাসানও নেই। দুই গুরুত্বপূর্ণ ক্রিকেটারকে ছাড়া ফাইনালে দলের এমন লড়াই দেখে উচ্ছ্বসিত রোডস, ‘সাকিব-তামিমকে ছাড়া সত্যিই দুর্দান্ত লড়াই করেছে বাংলাদেশ। মুশফিক পুরো টুর্নামেন্টে ভালো করেছে, চাপের মধ্যেও রান করেছে। ছেলেরা অনেক চেষ্টা করেছে, কিন্তু ক্রিকেটে প্রতিদিন সবকিছু ঠিকঠাক যায় না।’

সব মিলে শক্তিশালী ভারতের বিপক্ষে পারফরম্যান্সে তৃপ্ত বাংলাদেশের কোচ, ‘আমরা দারুণ শুরু করেছিলাম। মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যানরা ভালো করতে পারলে ফল অন্যরকম হতে পারতো। বল হাতে আমাদের পারফরম্যান্স তো অসাধারণ। ছেলেদের কাছ থেকে এর চেয়ে বেশি কিছু চাওয়ার নেই।’

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here