বঙ্গবন্ধু গোল্ড কাপের উদ্বোধনী ম্যাচে লাওসকে ১–০ গোলে হারিয়ে শুভসূচনা করেছে বাংলাদেশ। সোমবার সন্ধ্যায় সিলেট জেলা স্টেডিয়ামে খেলার ৫৯ মিনিটে বিপলু আহমেদের পা থেকে জয়সূচক একমাত্র গোলটি আসে।

গ্যালারিতে হাজার বিশেক দর্শক, সবার কণ্ঠে ‘বাংলাদেশ-বাংলাদেশ’ শ্লোগান। এমন উৎসবমুখর দিনটাকে আরও রাঙিয়ে দিলো জেমি ডে’র শিষ্যরা। ম্যাচের ৫৯ মিনিটে সিলেটের ‘লোকাল বয়’ বিপলু আহমেদের পা থেকে এসেছে জয়সূচক গোলটি। এর মাধ্যমে লাওসকে ১-০ গোলে হারিয়ে বঙ্গবন্ধু গোল্ড কাপে শুভসূচনা করেছে বাংলাদেশ।

ম্যাচের দ্বিতীয় মিনিটে সুফিলের ডিফেন্স চেরা পাস বিপলু ধরতে পারেননি। ১১ মিনিটে ওয়ালি ফয়সালের  লম্বা পাস ধরে নাবীব নেওয়াজ জীবন বক্সের প্রান্ত থেকে জোরালো শট নিলেও তা দূরের পোস্ট দিয়ে বেরিয়ে যায়।

২২ মিনিটে বিপলুর ক্রস থেকে লাফিয়ে উঠে ঠিকমতো হেড করতে পারেননি আন্তর্জাতিক ফুটবলে অভিষিক্ত রবিউল হাসান। তিন মিনিট পর  সুফিল বক্সে ঢুকে পোস্টে শট নিতে ব্যর্থ হন। ২৯ মিনিটে বিপলুর পাস ধরে জীবন আলতো শটে গোলকিপারের হাতে বল তুলে দেন।

প্রথমার্ধে লাওস পাল্টা আক্রমণ থেকে দুটি সুযোগ পেলেও কাজে লাগাতে পারেনি। ১৫ মিনিটে চানথাপোনের ক্রসে বাউনথাভি সিপাসংয়ের হেড ক্রসবারের ওপর দিয়ে যায়। আর ৩৬ মিনিটে বোনপাচানের শট ধরে ফেলেন গোলকিপার আশরাফুল ইসলাম রানা।

বিরতির পরও আক্রমণে ভাটা পড়েনি বাংলাদেশের। ৪৭ মিনিটে জীবনের স্কয়ার পাস থেকে সুফিলের জোরালো শট বারের পাশ দিয়ে যায়। ৪৯ ও ৫৪ মিনিটে দুটি সুযোগ নষ্ট করেছেন লাওসের সোকচিন্দার নাতফাসুক। প্রথমবার তার জোরালো শট ক্রসবারের একটু ওপর দিয়ে যায়। আর পরেরবার তার হেড চলে যায় ক্রসবার উঁচিয়ে।

৫৮ মিনিটে কাঙ্ক্ষিত গোলের দেখা পায় বাংলাদেশ। জীবনের হেড গোলকিপার ফিস্ট করার পর ক্রস বারে লেগে ফিরে আসে। এরপর এক ডিফেন্ডার ক্লিয়ার করার চেষ্টা করলে জীবনেরই পায়ে লেগে বল চলে যায় ডান দিকে থাকা বিপলুর কাছে। এই ফরোয়ার্ডের শট গোলকিপারের পায়ে লেগে পোস্টে জড়ালে গ্যালারি ভেসে যায় আনন্দে।

এরপর দুই দল কয়েকটি সুযোগ পেলেও গোলের দেখা পায়নি। তাতে অবশ্য বাংলাদেশের ক্ষতি হয়নি। তিন পয়েন্ট নিয়ে স্বাগতিকরা এখন শেষ চারের অপেক্ষায়।

বাংলাদেশ দল: আশরাফুল ইসলাম রানা, ওয়ালি ফয়সাল, তপু বর্মণ, টুটুল হোসেন বাদশা, জামাল ভূঁইয়া, নাবীব নেওয়াজ জীবন, বিশ্বনাথ ঘোষ, বিপলু আহমেদ (মামুনুল), মাহবুবুর রহমান সুফিল ( মোহাম্মদ ইব্রাহিম), মাশুক মিয়া জনি ও রবিউল হাসান (জাফর ইকবাল)।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here