উগান্ডার পূর্বাঞ্চলীয় অঞ্চলে ভূমিধ্বসে কমপক্ষে ৩১ জন মারা গেছেন। এলগন পাহাড়ের এই ভূমিধ্বসে মানুষের প্রাণহানিসহ বাড়িঘর ভেঙ্গে যাওয়া এবং পশুপাখি মাটির নিচে চাপা পড়েছে বলে জানিয়েছে কাতার ভিত্তিক সংবাদ মাধ্যম আল-জাজিরা।

দেশটির দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কমিশনার মার্টিন ওয়াওর জানিয়েছেন, পাহাড়ের পাদদশে একটি ছোট্ট শহরে বৃহ¯পতিবার বিকাল থেকে ভূমিধ্বস শুরু হয়। বেশিরভাগ মানুষেরা স্থানীয় বাজার আশ্রয় নিয়েছে। এছাড়া ভূমিধ্বসে বড় বড় পাথরখন্ড পানিতে গিয়ে পড়ায় নদীর দুইকূল প্লাবিত হয়ে মানুষকে ভাসিয়ে নিয়ে গেছে। অনেকে নিখোঁজ রয়েছেন, মৃত্যুর আশঙ্কা করাব হচ্ছে অনেকের। এখন দ্বিতীয় বর্ষাকাল চলার কারণে তীব্র বৃষ্টিপাত থেকে এ ভূমিধ্বসে সৃষ্টি হচ্ছে।

তিনি আরো জানান, ত্রাণ বিতরণকারী দলগুলো ইতিমধ্যে নিখোঁজদের খুঁজতে অভিযান চালাচ্ছে। উদ্বাস্তদের এই মুহুর্তে আশ্রয়, খাবার এবং অন্যান্য সহায়তা দরকার। সেসব এলাকায় এখন ত্রআন পাঠানো হচ্ছে।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here