সাংবিধানিকভাবে অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচনের জন্য নির্বাচনের জন্য করণীয় সব কিছুই করবে নির্বাচন কমিশন। এ কথা জানিয়েছেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার কেএম নূরুল হুদা।

আাজ মঙ্গলবার সকালে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের প্রস্তুতি হিসেবে  জেলা ও আঞ্চলিক নির্বাচন কর্মকর্তাদের সঙ্গে বৈঠকে তিনি এ কথা বলেন।

কর্মকর্তাদের উদ্দেশ্যে প্রধান নির্বাচন কমিশনার বলেন, নির্বাচনের মাধ্যমে সরকার পরিবর্তন হয়। ভোটারদের নিরাপত্তা, প্রার্থীদের আচরণবিধি মেনে চলাসহ যাবতীয় বিষয়ে গুরুত্ব দিতে হবে৷ নির্বাচনের দায়িত্ব পালনে কর্মকর্তাদের প্রভাবিত না হওয়ারও নির্দেশনা দেন তিনি।

বৈঠকে ভোটারদের নিরাপত্তা, প্রার্থীদের আচরণবিধি মেনে চলার জন্য তাদের সঙ্গে কাজ করা, সুশীল সমাজ, মিডিয়াসহ অন্যান্যদের পরামর্শ গ্রহণ করে নিজেদের বিবেক বুদ্ধি ও অভিজ্ঞতাকে কাজে লাগিয়ে জাতিকে প্রত্যাশিত নির্বাচন উপহার দেওয়ার জন্য সবাইকে আন্তরিক প্রচেষ্টা চালানোর আহ্বান জানান তিনি।

বৈঠকে আলোচ্য সূচির মধ্যে রয়েছে- একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন উপলক্ষে ভোটার তালিকার সিডি যাচাই ও মুদ্রণ; ভোটকেন্দ্র স্থাপনের জন্য প্রতিষ্ঠান নির্ধারণ এবং ক্ষেত্রমতে প্রতিষ্ঠানের বিশেষ সংস্কার; ভোটগ্রহণ কর্মকর্তাদের প্যানেল প্রস্তুত এবং প্রশিক্ষণের আয়োজন; নির্বাচনি দ্রব্যাদি সংগ্রহ, বিতরণ ও বাজেট প্রণয়ন ইত্যাদি।

অনুষ্ঠানে জেলা, আঞ্চলিক ও সিনিয়র জেলা অফিসারসহ ইসির উর্ধতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here