‘#মি টু’ ঝড় প্রবলভাবে আছড়ে পড়েছে বলিউডের বুকে। এত দিন পরিচালক, প্রযোজক, গায়ক ও অভিনেতারা এই ঝড়ের কবলে পড়েছিলেন। আন্দোলনে এবার এমন সব তারকার নাম উঠে এসেছে, যা শুনলে সত্যি হজম করতে অসুবিধা হবে। সাধারণ মানুষ এই সুপারস্টারদের নিয়ে ফ্যান্টাসির দুনিয়ায় বসবাস করেন। আজ তাঁদের জীবনের কালো কিছু অতীত প্রকাশ্যে এসে গেছে ‘#মি টু’র সৌজন্যে।

এবার পরিচালক কুশান নন্দী বিরুদ্ধে অভিযোগ তুলেছেন লিউড অভিনেত্রী চিত্রঙ্গদা। তার অভিযোগ পরিচালক তাকে শাড়ি খোলার চাপ প্রয়োগ করেছিল। আর এর প্রতিবাদ করা তো দূরের কথা পাশে বসে হা করে এসব দৃশ্য দেখেছেন অভিনেতা নওয়াজউদ্দিন সিদ্দিকি। তনুশ্রী দত্তের মতোই খারাপ অভিজ্ঞতা হয়েছিল চিত্রাঙ্গদা সিংহের।

২০১৬ সালে ‘বাবুমশাই বন্দুকবাজ’ সিনেমার শুটিং সেটের ঘটনা শেয়ার করেছেন চিত্রাঙ্গদা সিংহ। ছবির পরিচালক কুশান নন্দী তাকে শাড়ি খুলে ছায়া পরে একটি দৃশ্যে অভিনয় করার কথা বলেছিলেন। নওয়াজের সঙ্গে খুব অন্তরঙ্গ একটি দৃশ্যে অভিনয় করতে বলেছিলেন কুশান।

সংবাদমাধ্যমকে চিত্রাঙ্গদা জানিয়েছেন, সেই দৃশ্যে অভিনয় করতে চাননি তিনি। কিন্তু পরিচালক সেই দৃশ্য বাদ দিতে মোটেই রাজি ছিলেন না। চিত্রাঙ্গদা কান্নাকাটি করছেন দেখেও তাকে জোর করছিলেন কুশান। শেষ পর্যন্ত শুটিং ফ্লোর থেকে ফিরে আসেন তিনি। এই সব দেখেও চুপ ছিলেন নওয়াজউদ্দিন সিদ্দিকি। পুরো সময়টাই তিনি নীরব দর্শকের মতো উপভোগ করেছেন বলে অভিযোগ করেছেন চিত্রাঙ্গদা।

শেষপর্যন্ত সেই ছবিতে অভিনয় করেননি চিত্রঙ্গদা সিংহ। ওই দৃশ্যে অভিনয় করতে না চাওয়া তাকে বাদ দেওয়া হয়েছিল।তার চরিত্রটিতে অভিনয় করেছিলেন বিদিতা বাগ। কাজের জায়গায় এই ধরনের ঘটনা এড়াতে নারীদের একজোট হওয়া উচিত বলে মনে করে চিত্রাঙ্গদা।

শেষপর্যন্ত সেই ছবিতে অভিনয় করেননি চিত্রঙ্গদা সিংহ। ওই দৃশ্যে অভিনয় করতে না চাওয়া তাকে বাদ দেওয়া হয়েছিল।তার চরিত্রটিতে অভিনয় করেছিলেন বিদিতা বাগ। কাজের জায়গায় এই ধরনের ঘটনা এড়াতে নারীদের একজোট হওয়া উচিত বলে মনে করে চিত্রাঙ্গদা।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here