আফ্রিকার দ্বিতীয় দেশ হিসেবে মন্ত্রিসভায় নারী ও পুরুষের সমতা এনেছেন ইথিওপিয়ার প্রধানমন্ত্রী আবিই আহমেদ। প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের মতো গুরুত্বপূর্ণ মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব তিনি তুলে দিয়েছেন এক নারীর হাতে। এছাড়া মন্ত্রিসভার অর্ধেক সদস্য হিসেবে নারীদের নিয়োগ দিয়েছেন তিনি। নিজের এই সিদ্ধান্তের ব্যাখ্যায় পার্লামেন্টে আবিই আহমেদ বলেছেন, নারীরা পুরুষের তুলনায় ‘কম দুর্নীতি পরায়ন’ এবং ‘শান্তি ও স্থিতিশীলতা পুনপ্রর্বতন করতে পারে’। ইথিওপিয়ার আগে আরেক আফ্রিকান দেশ রুয়ান্ডা মন্ত্রিসভায় নারী ও পুরুষের সংখ্যায় সমতা এনেছিল।

গত এপ্রিলে ক্ষমতায় আসেন আবিই আহমেদ। দায়িত্ব নিয়ে বেশ কিছু সংস্কার চালিয়েছেন তিনি। এর মধ্যে রয়েছে প্রতিবেশি ইরিত্রিয়ার সঙ্গে দুই দশকের যুদ্ধের অবসান, হাজার হাজার রাজনৈতিক বন্দির মুক্তি এবং অর্থনীতির ওপর রাষ্ট্রীয় কর্তৃত্ব খর্ব। সর্বশেষ তিনি নারী পুরুষের সমতা আনতে মন্ত্রিসভার সদস্য সংখ্যা ২৮ থেকে ২০তে নামিয়ে আনলেন।

দেশকে বিশৃঙ্খলার দিকে ঠেলে দেওয়ার কারণ হিসেবে কাঠামোগত এবং কৌশলগত সমস্যাকে দায়ী করে প্রধানমন্ত্রী আবিই আহমেদ বলেছেন এসব সমস্যা সমাধানের জন্য তার সংস্কার পরিকল্পনা বাস্তবায়ন জরুরি। তিনি বলেন, শান্তি ও স্থিতিশীলতা পুনপ্রবর্তনে নারীরা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখেছে, তারা কম দুর্নীতি পরায়ণ, কাজের প্রতি শ্রদ্ধাশীল এবং পরিবর্তনের পক্ষে ধাবিত হতে পারে।

রাজনৈতিক ও অর্থনৈতিক বঞ্চনার বিরুদ্ধে আদিবাসী গোষ্ঠী অরোমোসদের তিন বছরের বিক্ষোভের জেরে এই বছরের ফেব্রুয়ারিতে পদত্যাগ করেন তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী হেইলমারিয়াম ডিসালিন। এপ্রিলে ক্ষমতায় আসেন ৪২ বছর বয়সী আবিই আহমেদ। নিজে অরোমোস গোষ্ঠীভুক্ত হলেও আবিই আহমেদের বিশ্বাস ও ঐক্যের ডাকে সাড়া দিয়ে সতর্ক প্রশংসা করেছেন বহু ইথিওপিয়ান নাগরিক।

জাতিসংঘে নিযুক্ত ইথিওপিয়ার স্থায়ী উপদূত মাহলেত হাইলু নতুন মন্ত্রীদের তালিকা টুইটারে প্রকাশ করেছেন। প্রধানমন্ত্রীর নতুন সিদ্ধান্তের ফলে ইথিওপিয়ার প্রথম প্রতিরক্ষামন্ত্রী নিযুক্ত হয়েছেন আয়শা মোহাম্মদ। দেশের উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় আফার এলাকা থেকে আসা আয়শা এর আগে অবকাঠামো নির্মাণ বিষয়ক মন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। পার্লামেন্টের সাবেক স্পিকার মুফেরিয়াত কামিল হয়েছেন দেশের প্রথম নারী শান্তি মন্ত্রী। ফেডারেল পুলিশসহ দেশের গোয়েন্দা ও নিরাপত্তা সংস্থাগুলোর দেখভাল করবেন তিনি।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here