অবশেষে নাইওর শেষে বাবার বাড়ি ছেড়ে কৈলাসে স্বামীর ঘরে ফিরে গেলেন দেবী দুর্গা। আগামী দিনের শুভ কামনায় দেবী দুর্গাকে বিদায় জানালেন হাজারো ভক্ত।

শুক্লপক্ষের ষষ্ঠী তিথিতে দেবী দুর্গার আবাহন হয়েছিল। আজ প্রতিমা বিসর্জনের মধ্য দিয়ে দুর্গোৎসবের আনুষ্ঠানিক পরিসমাপ্তি ঘটলো। শেষ হলো সনাতন ধর্মাবলম্বীদের সবচেয়ে বড় এ ধর্মীয় উৎসব।

শুক্রবার বিকেলে রাজধানীর ওয়াইজঘাটে প্রতিমা বিসর্জন দেন সনাতন ধর্মাবলম্বীরা।

এর আগে ৩টার পর পরই বিভিন্ন এলাকা থেকে প্রতিমাসহ ভক্তরা জড়ো হন ওয়াইজঘাটে। বাদ্য আর আরতির মাধ্যমে বিসর্জন দেওয়া হয়। শেষবারের মতো তেল-সিঁদুর পরিয়ে চোখের জলে মাকে এক বছরের জন্য বিদায় জানান তারা।

তাপশ পাল নামে এক ভক্ত বলেন, ‘পূজার পর মাকে বিদায় জানানো সত্যিই অনেক কষ্টের। মায়ের কাছে আমরা অনেক কিছু চেয়েছি। আজ মা আমাদের বিদায় দিয়ে চলে গেলেন।’

মোহন দাস নামে অপর ভক্ত বলেন, ‘মাকে বিদায় দিতে ইচ্ছা করছে না। তারপরেও মাকে বিদায় দিয়েছি। তবে বছর ঘুরে আবারও মা আমাদের কাছে ফিরে আসবেন।’

এর আগে মণ্ডপে মণ্ডপে চলে নারীদের সিঁদুর খেলা। নারীরা তাদের ও পরিবারের কল্যাণে এ ধর্মীয় আচার পালন করেন প্রতি বছরের দুর্গোৎসবে। এছাড়া একে অপরকে আলিঙ্গন করে বিজয়ার শুভেচ্ছা জানান। লাল টকটকে সিঁদুর দেবী দুর্গার পায়ে নিবেদন করে সেই সিঁদুর পা থেকে তুলে নিয়ে সিঁথিতে দিয়ে আগামী দিনের জন্য শুভ কামনা করা হয় মন্দিরে মন্দিরে।

 

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here