আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন নিরপেক্ষ হবে বলে দাবি করেছেন প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনা।

তিনি বলেছেন, ‘ভোট গণতান্ত্রিক অধিকার। ভোট নিরপেক্ষ হবে এতে কোনো সংশয় নেই। জনগণ যাকে ভোট দেবে তারাই সরকার গঠন করবেন।’

তবে উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে সবাইকে নৌকা মার্কায় ভোট দেয়ার আহ্বান জানান শেখ হাসিনা।

রবিবার সন্ধ্যায় গণভবনে ১৪ দলের বৈঠকের সূচনা বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ হাসিনা বলেন, ‘বিএনপি-জামায়াত জোট ক্ষমতায় এলে আবারো দেশ মানি লন্ডারিং, দুর্নীতি, জঙ্গি সন্ত্রাসের দেশে পরিণত হবে। মানুষ উন্নয়ন থেকে বঞ্চিত হবে, তাদের ভাগ্যের উন্নয়ন হবে না। তবু জনগণ ক্ষমতার মালিক। তারা যাকে ভোট দেবে তারাই সরকার গঠন করবে।’

তিনি বলেন, গত দশ বছরে আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় থেকে দেশের উন্নয়নে কাজ করেছে। বাংলাদেশ উন্নয়নশীল দেশে পরিণত  হয়েছে। প্রবৃদ্ধি বেড়েছে। দারিদ্রতার হার কমেছে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘দেশের মানুষের মনে নতুন স্বপ্ন জাগ্রত হয়েছে। আওয়ামী লীগ এলে দেশ উন্নত হয়, এখন দেশের মানুষ সেটি বিশ্বাস করে। আমরা আশা করি আগামীতে মানুষ ভোট দিয়ে আওয়ামী লীগকে নির্বাচিত করলে উন্নয়নশীল দেশ থেকে উন্নত দেশের মর্যাদা পাবে বাংলাদেশ।’

মানুষ নিজেদের উন্নতির জন্য আগামী নির্বাচনে আওয়ামী লীগকে ভোট দেবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন শেখ হাসিনা।

এসময় তিনি দাবি করেন, আওয়ামী লীগের অধীনে যতগুলো নির্বাচন হয়েছে সবগুলো অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ হয়েছে।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here