অস্ট্রেলিয়ার পর এবার নিউজিল্যান্ডকেও হোয়াইটওয়াশ করল পাকিস্তান। তিন ম্যাচ টি-টুয়েন্টি সিরিজে উত্তেজক প্রথম ম্যাচে এসেছিল মাত্র দু’রানে জয়। সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচে ব্ল্যাক ক্যাপসদের ছয় উইকেটে হারিয়ে ঘরের মাঠে ফের টি-টোয়েন্টি সিরিজ জিতে নিয়েছিল পাকিস্তান। আর শেষ ম্যাচে ৪৭ রানে  কিউদের হারিয়ে হোয়াইটওয়াশ করল পাকিস্তান।

বিবার দুবাই আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে টস জিতে ব্যাট করে পাকিস্তান। ৩ উইকেট হারিয়ে ১৬৬ রানে স্কোরবোর্ড সমৃদ্ধ করে তারা। জবাবে কেন উইলিয়ামসনের হাফসেঞ্চুরি কিছুটা আশাবাদী করে তুলেছিল নিউজিল্যান্ডকে। কিন্তু তাদের লাইনচ্যুত করেন পাকিস্তানি স্পিনাররা। ১৬.৫ ওভারে ১১৯ রানে অলআউট হয় ব্ল্যাক ক্যাপারা।

ফখর জামান ১১ রানে আউট হলে ভাঙে পাকিস্তানের ২৯ রানের উদ্বোধনী জুটি। তারপর হেসেছে বাবর ও হাফিজের ব্যাট। অল্পের জন্য জুটিটা একশ রানের হয়নি। তাদের ৯৪ রানের জুটি ভাঙেন কলিন ডি গ্র্যান্ডহোম। ৫৮ বলে ৭ চার ও ২ ছয়ে ৭৯ রান করেন বাবর। হাফিজ খেলে গেছেন শেষ বল পর্যন্ত। ৩৪ বলে চারটি চার ও দুটি ছয়ে ৫৩ রানে অপরাজিত ছিলেন তিনি।

নিউজিল্যান্ডের পক্ষে ডি গ্র্যান্ডহোম সবচেয়ে বেশি ২ উইকেট নেন।

লক্ষ্যে নেমে ১৩ রানে দুই উইকেট হারালেও নিউজিল্যান্ডকে আশাবাদী করে তোলে উইলিয়ামসন ও গ্লেন ফিলিপসের ৮৩ রানের জুটি। কিন্তু ১৩তম ওভারে শাদাব খান তাদের বিচ্ছিন্ন করে দুর্দান্ত ব্রেকথ্রু আনেন। উইলিয়ামসন ৩৮ বলে ৮ চার ও ২ ছয়ে ৬০ রানে আউট হন। দুই বল পর ফিলিপসও ২৬ রানে শাদাবের দ্বিতীয় শিকার হন।

এরপর টানা দুই ওভারে আরও দুইবার জোড়া ধাক্কায় বিধ্বস্ত হয় নিউজিল্যান্ডের ব্যাটিং লাইনআপ। আর নবাগত ওয়াকাস মাসুদ নিজের দ্বিতীয় ওভারে দুটি উইকেট তুলে নিয়ে প্রতিপক্ষকে গুটিয়ে দেন।

শাদাব সবচেয়ে বেশি ৩ উইকেট নেন। দুটি করে পান ইমাদ ওয়াসিম ও ওয়াকাস।

ম্যাচসেরা হয়েছেন বাবর, আর সিরিজের সেরা হাফিজ।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here