ইনিংসের ১১তম ওভারের চতুর্থ বল। নিউজিল্যান্ডের বোলার লুকি ফার্গুসনের বলে ব্যাটের হালকা ছোঁয়ায় আউট সাইড অফে পাঠিয়ে দিলেন বাবর আজম। আর সেই সঙ্গে নিজের রেকর্ড ভান্ডারকে অনন্য উচ্চতায় নিয়ে গেলেন পাকিস্তানি এই ওপেনার। টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে সবচেয়ে কম ইনিংসে (২৬ ইনিংস) দ্রুততম এক হাজার রানের ক্লাবের নতুন সদস্য এখন বিশ্বের সেরা এই ব্যাটসম্যান। রেকর্ড গড়ার পথে তিনি ছাড়িয়ে গেছেন ভারতীয় তারকা ভিরাট কোহলিকে।

দুবাইয়ে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে সিরিজের তৃতীয় ও শেষ টি-টোয়েন্টিতে ব্যাট হাতে মাঠে নামার আগে বাবর আজমের রান ছিল ২৫ ইনিংস শেষে ৯৫২। ভিরাট কোহলিকে (২৭ ইনিংসে ১০০০ রান) টপকে মাত্র ২৬ ইনিংসে দ্রুততম ১ হাজার রানের মাইলফলক স্পর্শ করতে বাবর আজমের প্রয়োজন ছিল ৪৮ রান।

মাঠে নেমে বেশ ধীরেসুস্থে ইনিংস সাজান তিনি। প্রয়োজনীয় ৪৮ রান তুলে নিতে ৩৮ বল খেলেন টি-টোয়েন্টি র‍্যাংকিংয়ের শীর্ষে থাকা এই ব্যাটসম্যান। আর তাতেই ভিরাট কোহলিকে পেছনে ফেলেছেন বাবর। এক হাজার স্পর্শ করতে ভিরাট কোহলির চেয়ে ১ ইনিংস কম খেলেছেন তিনি। এই মাইলফলক স্পর্শ করতে কোহলির ২৭ ইনিংস। আর বাবর আজমের লাগলো ২৬ ইনিংস!

এদিন এক হাজারি ক্লাবে গিয়েই থামেননি বাবর আজম। তুলে নিয়েছেন টি-টোয়েন্টি ক্যারিয়ারের অষ্টম হাফ-সেঞ্চুরি। আউট হয়ে প্যাভিলিয়নে ফিরেছেন ৭৯ রান। সবমিলিয়ে টি-টোয়েন্টিতে এখন তার রান সংখ্যা ১০৩১।

কম ইনিংসে দ্রুততম হাজার রানের এই ক্লাবে বাবর আজম ও ভিরাট কোহলির পরেই তৃতীয় অবস্থানে আছেন অস্ট্রেলিয়ার অ্যারন ফিঞ্চ। ফিঞ্চ ২৯ ইনিংস খেলে ঢুকেন এই ক্লাবে। তারপরেই আছেন প্রোটিয়া গ্রেট ফাফ ডু প্লেসিস।

টি-টোয়েন্টিতে কম ইনিংস খেলে দ্রুততম হাজার রান ছুঁয়েছেন যারা-

২৬ ইনিংস- বাবর আজম (পাকিস্তান)

২৭ ইনিংস- ভিরাট কোহলি (ভারত)

২৯ ইনিংস- অ্যারন ফিঞ্চ (অস্ট্রেলিয়া)

৩২ ইনিংস- ফাফ ডু প্লেসিস (দক্ষিণ আফ্রিকা)

৩২ ইনিংস- অ্যালেক্স হেলস (ইংল্যান্ড)

৩২ ইনিংস- কেভিন পিটারসন ( ইংল্যান্ড)

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here