প্রথম ম্যাচে কষ্টার্জিত জয় এলেও দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টিতে ক্যারিবিয়ানদের কার্যত উড়িয়ে দিল টিম ইন্ডিয়া। সেইসঙ্গে টেস্ট, ওয়ান ডে’র পর দিওয়ালির প্রাক্কালে টি-টোয়েন্টি সিরিজও পকেটে পুড়ল মেন ইন ব্লু। ৬১ বলে ১১১ রান করে লখনউয়ে মঙ্গলবার ভারতের জয়ের নায়ক অধিনায়ক রোহিত শর্মা। সেইসঙ্গে বোলারদের দাপুটে পারফর্ম্যান্সে ৭১ রানে ম্যাচ জয় ভারতের। ঙ্গে ভারতের হয়ে সর্বোচ্চ ২২০৩ রানও এখন তার দখলে।

মঙ্গলবারের আগ পর্যন্ত কিউই ব্যাটসম্যান কলিন মুনরোর সঙ্গে তিন সেঞ্চুরির কীর্তি ভাগাভাগি করেছেন রোহিত। মঙ্গলবার তাকেও ঝেরে ফেলেন ভারতীয় ওপেনার। নিয়মিত অধিনায়ক বিরাট কোহলির অনুপস্থিতিতে নেতৃত্বটা যে রোহিতকে ভালোভাবেই অনুপ্রাণিত করেছে তারও দেখা মেলে এই ম্যাচে।

ঘাসে ভরা লখনৌয়ের সবুজ উইকেট দেখেই হয়তো টস জিতে বোলিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয়ার লোভ সামলাতে পারেননি ক্যারিবীয় অধিনায়ক কার্লোস ব্র্যাথওয়েট। কিন্তু সেই সবুজ উইকেটেই যেন রানের ফুল ফোটান রোহিত। আরেক ওপেনার শিখর ধাওয়ানকে নিয়ে গড়েন ১২৩ রানের ওপেনিং জুটি।

৪১ বলে ৪৩ রান করে ধাওয়ান ফিরতেই দলের রান করার দায়িত্বটা নিজের ঘাড়ে তুলে নেন ভারপ্রাপ্ত অধিনায়ক। খেলেন ২০ ওভারের শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত। ভারত গড়ে ২ উইকেটে ১৯৫ রানের সংগ্রহ,যাতে রোহিতের একারই ১১১ রান! ৬১ বলে প্রায় ১৮২ স্ট্রাইকরেটে গড়া ইনিংসটিতে ৭বার বল উড়িয়ে ফেলেছেন সীমানার বাইরে। আর মাটি কামড়ানো বাউন্ডারির মার ছিলো ৮টি।

যেই সবুজ উইকেট দেখে বোলিংয়ের সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন ব্র্যাথওয়েট, ১৯৬ রানের বিশাল রান তাড়া করতে গিয়ে তারই ফাঁদে পড়ে তার দল। ৯ উইকেট হারিয়ে ১২৪ রানে থেমেছে ক্যারিবীয়দের ইনিংস। লক্ষ্য থেকে ৭১ রান দূরে।

সিরিজে আর কেবল একটি ম্যাচই বাকি আছে। চেন্নাইতে ১১ নভেম্বর নিয়মরক্ষার সেই ম্যাচে মাঠে নামবে দুই দল।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here